ঢাকা, শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২

বাবাকে বাঁচাতে রাবি শিক্ষার্থীর আকুতি

রাবি সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ১৭:৪৪, ১৭ অক্টোবর ২০২০

বাবার ভেড়া বিক্রির টাকা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির আবেদন করেছিলাম, বাবার সাপোর্ট না থাকলে হয়তো ভর্তিও হতে পারতাম না, স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যেতো। কিন্তু স্বপ্ন পূরণের দিনগুলোতে বাবাই যদি আমাকে ছেড়ে চলে যান, কিভাবে থাকবো? বাবার জন্য কিছু করেন ভাই। এভাবেই বাবার চিকিৎসার জন্য আকুতি জানিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আইন বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী নাজমুল হক আপন।

বাবার স্বপ্ন- সন্তান বড় হয়ে নিজ দেশের জন্য কাজ করবে। পরিবারে অর্থনৈতিক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও বাবার স্বপ্ন পূরণে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি আপনের বাবা দূরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন। শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে গেলেও অর্থের অভাবে এখনও চিকিৎসা শুরু করা সম্ভব হয়নি। এমতাবস্থায় ক্যান্সারের থেরাপি দিতে প্রায় ৩ লাখ টাকার প্রয়োজন। নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে চিকিৎসা ব্যয় যোগান দেয়া সম্ভবপর হচ্ছে না বলে জানান আপন।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে আপন জানান, ‘যত দ্রুত সম্ভব বাবাকে ক্যান্সারের থেরাপি দিতে হবে। থেরাপি দেয়ার পর রোগের মাত্রাকে ৫০ শতাংশ কমিয়ে আনা সম্ভব। তা না হলে দিন দিন অবস্থার অবনতি হবে।

আপন আরো জানান, তাঁর বাবা পরিবারের একমাত্র উপার্জনোক্ষম ব্যক্তি। অসুস্থ হবার পর থেকে পরিবারে অর্থনৈতিক সমস্যা লেগেই আছে। এমতাবস্থায় একসঙ্গে এতো টাকা সংগ্রহ করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই বাবার চিকিৎসা শুরু করতে সমাজের হৃদয়বানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। 

সাহায্য পাঠানোর জন্য- নাজমুল হক আপন- মোবাইল নম্বর- ০১৭৭৩৩৬৫৫৬৮ (বিকাশ)। এছাড়াও নগদ- ০১৬৩৮২২৭৬৫৬। ডাচ বাংলা ব্যাংক, রাবি শাখা-1351050104519।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি