ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪

বীরের অমর্যাদা ট্রাম্পের দুঃখের কারণ হতে যাচ্ছে?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৩৪, ৬ নভেম্বর ২০২০ | আপডেট: ২১:১৫, ৬ নভেম্বর ২০২০

নির্বাচনে পরাজয়ের পথে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার এ সম্ভাব্য পরাজয় নিয়ে চলছে নানা বিশ্লেষণ। যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম ও কিছু স্যোশাল মিডিয়া সাইট জানাচ্ছে, জর্জিয়া এবং অ্যারিজোনায় ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরাজয়ের সম্ভাব্য কারণ হতে পারে দু'‌জন আমেরিকান বীরের সমালোচনা। দুটি রাজ্যের ভোট গণনাতেই জো বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন। এই দুটি রাজ্যই এর আগে রিপাবলিকানদের পক্ষে ভোট দিয়েছে। তবে এখনো ভোট গণনা শেষ হয়নি। 

বিশ্লেষকরা জানাচ্ছেন, ট্রাম্প সম্প্রতি অ্যারিজোনার প্রয়াত সিনেটার জন ম্যাকেইনকে আক্রমণ করে বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন ভিয়েতনাম যুদ্ধের সময় ম্যাকেইন যুদ্ধবন্দি ছিলেন, তাই তাকে বীর বলা যায় কি? গত বছর ট্রাম্প বলেছিলেন, নতুন স্বাস্থ্য সেবা ব্যবস্থা ওবামাকেয়ার বাতিলের পক্ষে ভোট না দিয়ে ম্যাকেইন অবসরপ্রাপ্ত যোদ্ধাদের উপকার করেননি। “সে আমার পছন্দের লোক না,” 

তিনি বলেন, “অন্য লোকে তাকে পছন্দ করুক, সেটা তাদের ব্যাপার। সেটা ঠিক আছে।“

ওদিকে ট্রাম্প জর্জিয়ার ক্লেটন কাউন্টির ভোটেও পিছিয়ে আছেন। এই কাউন্টি মার্কিন কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট সদস্য ও কৃষ্ণাঙ্গ অধিকার আন্দোলনের প্রতীক জন লুইসের জন্মভূমি। গত ২০১৭ সালে লুইস মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের প্রতি ইঙ্গিত করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। 

এর জবাবে এক টুইটার পোস্টে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘লুইস বাগাড়ম্বর না করে তার ওপর দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করুন’।

এদিকে পেনসিলভানিয়াতেও বাইডেন ট্রাম্পকে পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছেন। জো বাইডেন ৫,৫৮৭ ভোটে ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে এগিয়ে আছেন। ঐ রাজ্যে ৯৫% ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে।

রিপাবলিকানরা পেনসিলভানিয়া ও মিশিগানে ভোটগণনা বন্ধের জন্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্র্রাম্প ও রিপাবলিকান শিবিরের চালানো প্রচেষ্টা রুখে দিয়েছে স্থানীয় আদালত। বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) দুই আদালতে ভিন্ন ভিন্ন শুনানি শেষে এ রায় দেওয়া হয়। এর আগে জর্জিয়ার আদালতেও ট্রাম্প শিবিরের আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

এসি

 


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি