ঢাকা, সোমবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২২, || মাঘ ১০ ১৪২৮

তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের ভাষণ প্রত্যাখ্যান করেছে চীন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৩৭, ১১ অক্টোবর ২০২১ | আপডেট: ১১:২৭, ১১ অক্টোবর ২০২১

তাইওয়ানের জাতীয় দিবসে প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েনের দেওয়া ভাষণ প্রত্যাখ্যান করেছে চীন সরকার।

বেইজিং বলছেন, প্রেসিডেন্ট ওয়েনের ভাষণ সত্যকে বিকৃত করে এবং সংঘর্ষের উসকানি দেয়। 

স্বাধীনতা চেয়ে তাইওয়ান আলোচনার দরজা বন্ধ করে দিচ্ছে বলেও জানিয়েছে চীনের তাইওয়ানবিষয়ক কার্যালয়। 

রোববার তাইওয়ানের জাতীয় দিবসের এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট ওয়েন বলেন, তাইওয়ান কখনও চীনের কাছে মাথা নত করবে না। এ সময় নিজেদের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা জোরদারের কথা জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, "চলমান সংকটে তাইপে তাড়াহুড়ো করে কোনও পদক্ষেপ নেবে না। তবে চীনের চাপের কাছে মাথা নতও করবে না।"

সম্প্রতি তাইওয়ানের সামরিক আকাশ প্রতিরক্ষা অঞ্চলে চীনের রেকর্ড সংখ্যক যুদ্ধবিমান পাঠানোর ঘটনায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয় দুই দেশের মধ্যে। 

তবে চীন-তাইওয়ান বিরোধের শুরু ১৯২৭ সালে থেকে। ওই সময়ে চীনজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছিল গৃহযুদ্ধ।

১৯৪৯ সালে মাও সেতুংয়ের নেতৃত্বাধীন কমিউনিস্ট বিপ্লবীরা জাতীয়তাবাদী সরকারকে উৎখাতের মধ্য দিয়ে এ গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটায়। জাতীয়তাবাদী নেতারা পালিয়ে তাইওয়ানে যান। এর পর থেকে তারাই তাইওয়ান নিয়ন্ত্রণ করে।

প্রাথমিকভাবে ওই সময় যুদ্ধ বন্ধ হলেও উভয় দেশই নিজেদের চীনের দাবিদার হিসেবে উত্থাপন শুরু করে।

তাইওয়ানভিত্তিক সরকার দাবি করে, চীন কমিউনিস্ট বিপ্লবীদের দ্বারা অবৈধভাবে দখল হয়েছে। আর বেইজিংভিত্তিক চীন সরকার তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্নতাকামী প্রদেশ হিসেবে বিবেচনা করে।

সূত্র: রয়টার্স

এসবি/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি