ঢাকা, শুক্রবার   ১২ জুলাই ২০২৪

ফের চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে মিশনের পরিকল্পনা রাশিয়ার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:৪১, ২৫ আগস্ট ২০২৩

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে মহাকাশযান অবতরণে প্রথম সাফল্য দেখিয়েছে ভারত। ভারতের যান চাঁদে পৌঁছানোর পূর্বে রাশিয়া প্রায় ৫০ বছর পর লুনা-২৫ মিশন পাঠিয়েছিল। ‍কিন্তু সেটি বিধ্বস্ত হয়ে পুরো অভিযানটিই ব্যর্থ হয়। তবে আবারও চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অভিযান পরিচালনা করার পরিকল্পনা করছে দেশটি।

রুশ বার্তা সংস্থা তাস জানিয়েছে, রাশিয়ার স্টেট স্পেস কর্পোরেশন রসকসমস ২০২৫-২৬ সালে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে একটি নতুন মিশন পাঠানোর পরিকল্পনা করছে। রসকসমস প্রেস অফিস শুক্রবার এ ঘোষণা করেছে।

রসকসমসের প্রধান ইউরি বোরিসভ ২৫ আগস্ট লাভোচকিন রিসার্চ অ্যান্ড প্রোডাকশন অ্যাসোসিয়েশনে লুনা-২৫ এর বিজ্ঞানীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

প্রেস অফিসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘রসকসমস প্রধান এন্টারপ্রাইজের কর্মীদের এবং রুশ বিজ্ঞানীদের সঙ্গে অসমাপ্ত লুনা-২৫ মিশনের সম্ভাব্য কারণ এবং রাশিয়ার চন্দ্র কর্মসূচির আরও সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেছেন।’

রসকসমস প্রধান বলেছেন, বিশেষ করে অসম্পূর্ণ অভিযান চাঁদে অনুসন্ধানের ক্ষুধা আটকে রাখে নি। তিনি সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে এবং কাজ চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বোরিসভ জোর দিয়ে বলেছেন, রাশিয়ার প্রকৌশলী এবং বিজ্ঞানীরা চাঁদের মিশন নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী। তাদের লক্ষ্য ২০২৫-২৬ সালের মধ্যে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করা।

গত ১১ আগস্ট রাশিয়ার ভোস্তোচনি মহাকাশ বন্দর থেকে উৎক্ষেপণ করা হয় লুনা-২৫ যানটি। ১২ এবং ১৪ আগ্রস্ট যানটি দুটি কক্ষপথে প্রবেশ করে। ১৬ আগস্ট যানটি স্বয়ংক্রিয় স্টেশন থেকে চাঁদের কক্ষপথে প্রবেশ করে। তবে ১৯ আগস্ট চাঁদের পৃষ্ঠে বিধ্বস্ত হয় লুনা-২৫। এখানেই ব্যর্থ হয় ৪৭ বছর পর চালু করা রাশিয়ার চন্দ্রাভিযান।

ব্যর্থতার পর রসকসমস প্রধান বলেন, লুনা-২৫ ব্যর্থ হলো কেনো তার কারণ জানতে বিশেষ কমিশন গঠন করা হয়েছে। এদিকে, ২৩ আগস্ট চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সফল অবতরণ করে ভারতের চন্দ্রযান-৩। রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের পর বিশ্বের চতুর্থ দেশ এবং দক্ষিণ মেরুতে অবতরণকারী প্রথম হিসেবে ইতিহাস গড়ে দেশটি।

কেআই//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted







© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি