ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০২৪

নতুন রানী পেল অস্ট্রেলিয়ান ওপেন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:১৪, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩

অ্যারিনা সাবালেঙ্কা

অ্যারিনা সাবালেঙ্কা

আগেই জানা ছিলো, নতুন রানী পেতে চলেছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। হলোও তাই। শনিবার (২৮ জানুয়ারি) মেয়েদের বিভাগে অ্যালিনা রিবাকিনাকে হারিয়ে ট্রফি জিতলেন অ্যারিনা সাবালেঙ্কা। 

রড লেভার অ্যারেনায় এদিন কাজাখস্তানের সুন্দরীকে ৪-৬, ৬-৩, ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন বেলারুশ কন্যা। ম্যাচের শেষ দিকে দেখা গেল রুদ্ধশ্বাস লড়াই।

রাশিয়া এবং বেলারুশের খেলোয়াড়রা এবারের প্রতিযোগিতায় দেশের পতাকার অধীনে খেলতে পারছেন না। অথচ ট্রফি উঠল বেলারুশের খেলোয়াড়ের হাতেই। আর উল্টো দিকে যিনি ছিলেন, সেই রিবাকিনাও আদতে রাশিয়ারই খেলোয়াড়। 

বছর তিনেক আগে থেকে কাজাখস্তানের হয়ে খেলা শুরু করেন এই রুশ সুন্দরী। ফলে দুই নির্বাসিত দেশের সদস্যরাই মেয়েদের টেনিসের ফাইনাল খেললেন।

সাবালেঙ্কার টেনিসে আসা হঠাৎ করেই। বাবার সঙ্গে গাড়িতে করে এক দিন ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। রাস্তায় হঠাৎ কিছু টেনিস কোর্ট চোখে পড়ে। বাবার হাত ধরে সেই কোর্টে ঘুরতে গিয়েই খেলাটিকে ভালোবেসে ফেলেন অ্যারিনা। 

২০১৭ পর্যন্ত সেভাবে কেউ চিনতোও না তাকে। বেলারুশের ফেড কাপ দলের হয়ে সাফল্যের পর থেকে ধীরে ধীরে পরিচিতি পেতে শুরু করেন। তার পর চারটি ডব্লিউটিএ প্রতিযোগিতার মধ্যে তিনটির ফাইনালে ওঠেন সাবালেঙ্কা।

২০১৯ সালের মধ্যে সিঙ্গলসে প্রথম দশে ঢুকে পড়েন। ডাবলসে ছিলেন বিশ্বের দ্বিতীয় স্থান অধিকারী খেলোয়াড়। ২০২১-এ তিনটি ডব্লিউটিএ ট্রফি জেতেন। সিঙ্গলসের বিশ্বের দুই নম্বর হয়ে যান। ডাবলসে অধিকার করেন শীর্ষস্থান। গত বছর ভালো ছন্দে থাকলেও কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে পৌঁছতে পারেননি। সেই আক্ষেপ পূরণ হয়ে গেল এ বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যামেই।

এই প্রথমবার কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতলেন সাবালেঙ্কা। এর আগে উইম্বলডনে একবার এবং ইউএস ওপেনে দু’বার সেমিফাইনালে উঠলেও গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতা তো দূর, ফাইনালেও উঠতে পারেননি। সেই খরা কাটল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে এসে।

শনিবারের (২৮ জানুয়ারি) ম্যাচে অবশ্য শুরুতেই পিছিয়ে পড়েন সাবালেঙ্কা। এক সেট পিছিয়ে পড়েন তিনি। আগে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার অভিজ্ঞতা থাকায় রিবাকিনাকে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী মনে হচ্ছিল। খেলছিলেনও সেভাবেই। 

তবে দ্বিতীয় সেট থেকে পাল্টা জবাব দিতে শুরু করেন বেলারুশ কন্যা। এদিন ফাইনালে মুখোমুখি হন এমন দুই খেলোয়াড়, যারা একই সঙ্গে আগ্রাসী এবং শক্তিশালী হিটার হিসেবেও পরিচিত। তাই আগাগোড়া খেলা হয়েছে রুদ্ধশ্বাস।

প্রথম সেট রিবাকিনা জেতার পর দ্বিতীয় সেটেই ম্যাচে ফেরেন সাবালেঙ্কা। তৃতীয় সেটের শুরু থেকে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। দুই খেলোয়াড়ই নিজেদের সার্ভ ধরে রাখছিলেন। ব্রেক করে এগিয়ে যান সাবালেঙ্কাই। সপ্তম গেমে তিনি দুর্দান্ত একটি রিটার্ন করেন। তারপর ওভারহেড উইনারের সাহায্যে গেম নিজের করে নেন। 

তার পরেও হাল ছাড়েননি কাজাখ সুন্দরী। শেষ গেমের জন্য চলে লড়াই। সেটা এতটাই যে, ট্রফি জয় থেকে এক পয়েন্ট দূরে থাকলেও প্রথম তিন বার সেটা কাজেই লাগাতে পারেননি সাবালেঙ্কা। 

তিন বার ‘ডিউস’ হয় খেলা। অবশেষে চতুর্থ চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট কাজে লাগিয়ে ট্রফি জেতেন সাবালেঙ্কাই।

এনএস//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted







© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি