ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ আগস্ট ২০২২

তৃতীয় রাউন্ডে জোকোভিচ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৫০, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯

এগারো বছর আগে জীবনের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাব এসেছিল এই মঞ্চেই। এবং সে দিনের ফাইনালের প্রতিদ্বন্দ্বী আবারও তার সামনে এসে দাঁড়ালেন।

যথারীতি বৃহস্পতিবারের রড লেভার এরিনা দেখল নোভাক জোকোভিচের বিরুদ্ধে জো উইলফ্রিড সঙ্গার হার। বিশ্বের এক নম্বর তারকা ম্যাচ জিতলেন ৬-৩, ৭-৫, ৬-৪ ফলে। তার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে আর এক আকর্ষণীয় তথ্য। ২০০৮ সালের সেই স্মরণীয় ফাইনালের পরে এই প্রথমবার গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসরে সঙ্গা খেলতে নেমেছিলেন অবাছাই হিসেবে!

দু’ঘণ্টা চার মিনিটে ম্যাচ জিতে জোকোভিচ বলেন, আমার মনে হয় সঙ্গাও সেই ম্যাচের কথা ভোলেনি। তার পরে বহু উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়ে এগিয়েছি আমরা। আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রেখে ম্যাচে বেশি মনঃসংযোগ করছি।

বৃহস্পতিবারের ম্যাচে দুই পরিচিত প্রতিপক্ষের দ্বৈরথের তুলমূল্য বিচারে কেউ কারও চেয়ে খুব বেশি এগিয়ে বা পিছিয়ে ছিলেন না। কিন্তু জোকোভিচ জিতলেন কোর্টে অসম্ভব ক্ষিপ্রতাকে কাজে লাগিয়ে। নোভাকের কথায়, ‘জো’র বিরুদ্ধে খেলা আমার কাছে রীতিমতো এক কঠিন পরীক্ষা দেওয়ার মতো। আমি প্রথম সেট থেকে খুব সতর্ক ছিলাম।’ বরং ম্যাচ জিতে সঙ্গার প্রতি সম্ভ্রম ফুটে উঠেছে সার্বিয়ান তারকার গলায়। বলেছেন, ‘হাঁটুর সমস্যায় দীর্ঘদিন ধরে ভুগেছে সঙ্গা। অবাছাই হিসেবে খেলতে এসেছে। আমি বিশ্বাস করি, র‌্যাঙ্কিং দিয়ে ওর যোগ্যতা মাপতে যাওয়া বোকামি।’

বিদায় নিলেন স্ট্যানিসলাস ওয়ারিঙ্কা। চার সেটের টানটান লড়াইয়ে তাকে হারালেন কানাডার মিয়োস রাওনিচ। তার পক্ষে ফল ৬-৭ (৪), ৭-৬ (৬), ৭-৬ (১১) এবং ৭-৬ (৫)। বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম থেকে বিদায় নিলেও এটিপি প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে জোকোভিচের বিদ্রোহ নিয়ে তোপ দেগে গেলেন ওয়ারিঙ্কা। এক চিঠিতে ওয়ারিঙ্কা লিখেছেন, ‘গত পাঁচ বছরে টেনিস ঠিক লক্ষ্যেই এগিয়েছে। জোকোভিচ এটা কিন্তু নিশ্চিত করতে পারবে না, নতুন চিফ এগজিকিউটিভ এলেই টেনিস বিশ্বের ছবি পাল্টে যাবে। নোভাকের ভাবনার বিরোধী আমি।’

এ দিন পাঁচ সেটের লড়াইয়ে জাপানের কেই নিশিকোরি হারিয়েছেন ইভো কার্লোভিচকে। যিনি ম্যাচে মেরেছেন ৫৯টি এস সার্ভিস! ৬-৩, ৭-৬ (৮), ৫-৭, ৫-৭, ৭-৬ (১০) ম্যাচ জিতে নিশিকোরির মন্তব্য, ‘আমি সারা বছরেও বোধহয় এতগুলো এস সার্ভিস মারি না।’

বিদায় নিয়েছেন দমিনিক থিম। ১৯ বছরের অস্ট্রেলীয়, ওয়াইল্ডকার্ড নিয়ে খেলতে আসা অ্যালেক্সেই পপিরিনের বিরুদ্ধে তৃতীয় সেটের দ্বিতীয় গেমের পরে ম্যাচ ছেড়ে দেন তিনি। সেই সময়ে পপিরিনের পক্ষে স্কোর ছিল ৭-৫, ৬-৪, ২-০। পনেরো বছর পর তৃতীয় রাউন্ডে উঠলেন পাঁচ অস্ট্রেলীয়!

সূত্র: আনন্দবাজার

একে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি