ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

ইএসএল থেকে সরে দাঁড়ালো ইংল্যান্ডের ৬ ক্লাব

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:০২, ২১ এপ্রিল ২০২১

ইউরোপিয়ান সুপার লিগ ‘ইএসএল’ থেকে নিজেদেরকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে ‘বিগ সিক্স’ খ্যাত ইংলিশ ৬টি ফুটবল ক্লাব। গত রোববার ইউরোপের ১২ ক্লাব মিলে ইএসএল তৈরির ঘোষণা দেয়। যা বিশ্বব্যাপী ফুটবল কোচ, খেলোয়াড়, ভক্ত ও বিশ্লেষকদের সমালোচনার মুখে পড়ে।

ইএসএল থেকে প্রথমে ম্যানচেস্টার সিটি নিজেদের নাম সরিয়ে ফেলার উদ্যোগ নেয়। এই ক্লাবটিকে অনুসরণ করে চেলসিও কাগজপত্র প্রস্তুত করে এই নতুন লিগ থেকে নাম সরিয়ে নেয়ার। এরপর একে একে আর্সেনাল, লিভারপুল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, টটেনহ্যাম হটসপারও ইউরোপিয়ান সুপার লিগ থেকে নাম সরিয়ে নেয়।

ম্যানচেস্টার সিটি নিশ্চিত করেছে একটি আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তারা সুপার লিগ থেকে সরে এসেছে। লিভারপুল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সুপার লিগের সাথে তাদের যাত্রা এ পর্যন্তই।

আর্সেনাল ভক্তদের উদ্দেশ্যে একটি খোলা চিঠিতে লিখেছে, একটি ভুল হয়ে গেছে তাদের এবং বৃহত্তর ফুটবল কমিউনিটির কথা বিবেচনায় নিয়ে তারা নাম সরিয়েছে সুপার লিগ থেকে।

টটেনহ্যাম হটসপারের চেয়ারম্যান ডেনিয়েল লেভি দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, এই প্রস্তাবের ফলে যে শঙ্কা তৈরি হয়েছে তা ক্লাবের জন্য হতাশাজনক।

এদিকে, ইউরোপিয়ান ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফার প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার কেফেরিন সবগুলো ক্লাবকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ‘ইউরোপিয়ান ফুটবলকে এখনও অনেক দেয়ার আছে এই ক্লাবগুলোর। এখন আমাদের এগিয়ে যাওয়ার পালা।’

ইংল্যান্ডের এই ‘বিগ সিক্স’ ছাড়াও সুপার লিগে যুক্ত হয় স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ, ইতালির এসি মিলান, ইন্টার মিলান ও জুভেন্টাস।

এই সুপার লিগের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলেন ইংল্যান্ডের ফুটবল ভক্তরা, ফুটবল সংশ্লিষ্টরা, যুক্তরাজ্যের মন্ত্রীরা পর্যন্ত। ব্রাইটনের বিপক্ষে চেলসির ম্যাচের আগে কমপক্ষে এক হাজার ভক্ত জমায়েত হয়ে বিক্ষোভ করে। চেলসির কিংবদন্তী গোলরক্ষক পিতর চেক নিজে এসে ভক্তদের বোঝান, যাতে তারা সরে যায়।

এই ঘটনার পর ম্যানচেস্টার ইউনাইডের নির্বাহী ভাইস চেয়ারম্যান এড উডওয়ার্ড ২০২১ সালের শেষে নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তবে এই ঘটনায় বেশ কয়েকটি ক্লাবের কোচ ও শীর্ষ ফুটবলাররা নিজেদের অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ সরাসরি বলেছেন, এই সুপার লিগ ফুটবলের জন্যই হতাশাজনক। ক্লাবটির অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন যে সমষ্ঠিগতভাবেই লিভারপুলের ফুটবলাররা চান না যে সুপার লিগ হোক।

ম্যানচেস্টার সিটি আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়ার পরে ক্লাবটির ফুটবলার রাহিম স্টারলিং, ‘ওকে বাই’ লিখে একটি টুইট করেন। 

অন্যদিকে রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ গতকাল বলেন, ফুটবলকে বাঁচাতেই নিয়ে আসা হয়েছে এই সুপার লিগ। পেরেজ এই সুপার লিগের চেয়ারম্যান।

তবে ইংলিশ ক্লাবগুলো সরে দাঁড়ানোর পরে স্প্যানিশ বা ইতালিয়ান ক্লাবগুলো কোন বিবৃতি দেয়নি।
সূত্র : বিবিসি বাংলা
এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি