ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০২৪

মুকুটহীন কোহলি কতটা বদলে যাবেন?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২২, ৯ নভেম্বর ২০২১

বিরাট কোহলি

বিরাট কোহলি

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের টিকেট পায়নি ভারত। দলটি গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে। তবে শেষ তিন ম্যাচ জিতে মাথা উঁচু করেই অভিযানের সমাপ্তি টানে টিম ইন্ডিয়া। নামিবিয়ার বিপক্ষে এই ফরম্যাটে অধিনায়ক হিসেবে শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন বিরাট কোহলি। ম্যাচের পর জানালেন, নেতৃত্ব ছাড়লেও তার আগ্রাসন বজায় থাকবে।

সোমবার রাতে ম্যাচের পরে সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ভারত অধিনায়ক কোহলি। বেশির ভাগ প্রশ্নই ছিল তার অধিনায়কত্ব ছাড়া নিয়ে। 

এ ধরনের প্রশ্নে কোহলি বললেন, “প্রথমত, খুব শান্তি পেলাম। আমি সম্মানিত। কিন্তু ব্যাপারটাকে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখতে হবে। ওয়ার্কলোড ম্যানেজ করার এটাই সঠিক সময়। ৬-৭ বছর ধরে অসম্ভব চাপ সামলাতে হয়েছে। যাদের সঙ্গে খেলেছি তারা দুর্দান্ত। জানি, এখানে যে ফলাফল চেয়েছিলাম সেটা হয়নি। কিন্তু আমরা ভাল ক্রিকেট খেলেছি।”

“প্রথম দুটো ম্যাচে অন্তত দু’ওভার আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে পারিনি আমরা। আগেই বলেছিলাম, ওই দুটো ম্যাচে সাহসী ক্রিকেট খেলিনি। যে গ্রুপে আমরা ছিলাম সেখানে সাহসী ক্রিকেট খেলতে না পারলে মুশকিল” সংযোজন করেন তিনি।

কোচ রবি শাস্ত্রী এবং বিদায়ী সাপোর্ট স্টাফদের সম্পর্কে কোহলি বললেন, “ওরা গত কয়েক বছর ধরে দারুণ কাজ করেছে। একটা দারুণ পরিবেশ ছিল দলে।”

নিজেকে কতটা বদলাবেন এ প্রশ্নে কোহলি বলেন, “আমার আগ্রাসন কোনও দিন কমবে না। যেদিন সেটা হবে সেদিন আমি ক্রিকেট খেলা ছেড়ে দেব। আমি অধিনায়ক হওয়ার আগেও দলকে কোনও না কোনওভাবে সাহায্য করার চেষ্টা করেছি।”

এদিকে, নাবিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের সেরার পুরস্কার পান রবীন্দ্র জাদেজা। পুরস্কার নিয়ে তিনি বিদায়ী অধিনায়ক ও কোচ রবি শাস্ত্রী সম্পর্কে বলেন, “দুর্দান্ত অধিনায়কত্ব করেছে বিরাট। ১০-১২ বছর ধরে ওর সঙ্গে খেলছি। বরাবর ওর অধিনায়কত্ব উপভোগ করেছি। ও সবসময় ইতিবাচক ও আক্রমণাত্মক। একজন নেতার কাছ থেকে সেটাই চাই। সাপোর্ট স্টাফরাও খুব ভাল কাজ করেছে।”

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি