ঢাকা, রবিবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

অজিদের হারিয়ে আরাধ্য ফাইনালে ইংল্যান্ড

প্রকাশিত : ২২:৪৩ ১১ জুলাই ২০১৯ | আপডেট: ০৯:১৪ ১২ জুলাই ২০১৯

এজবাস্টনে ফাইনালের লড়াইয়ে `ইংলিশ শো` দেখিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে সহজেই হারালো ইংল্যান্ড। রয়-বেয়ারস্টো দুরন্ত সূচনা এনে দেয়ার পর রুটকে নিয়ে বাকি কাজটুকু সেরে ১০৭ বল হাতে রেখেই দলকে ৭ উইকেটের জয় এনে দিন মরগান। এর ফলে ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শিরোপার লড়াইয়ে অবতীর্ণ হবে স্বাগতিকরা।

এর আগে অজিদের দেয়া ২২৪ রানের মাঝারি লক্ষ্যকে মামুলী বানিয়ে জয়ের ভীত গড়ে দেন দুই ইংলিশ ওপেনার। এ দুজনের ১২৪ রানের ঝোড়ো জুটিই মূলত অজিদের বিপক্ষে ম্যাচকে সহজ করে দেয়।

এদিন রয়ের সঙ্গে ১০৪ বলে ১২৪ রানের ঝোড়ো জুটি গড়ে স্টার্কের শিকার হয়ে ফেরেন ওপেনার জনি বেয়ারস্টো। লেগ বিফোর হয়ে ফেরার আগে ৪৩ বলে পাঁচ বাউন্ডারিতে ৩৪ রান করেন জনি। তার আগে অল্প পুঁজি টপকাতে গিয়ে অজি বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলায় মাতেন দুই ওপেনার।

জনি ফেরার কিছুক্ষণ পরই আউট হন সেঞ্চুরির লক্ষ্যে ছুটতে থাকা ইংলিশদের `সৌভাগ্য` ফেরানো ওপেনার জেসন রয়। সাজঘরে ফেরার আগে মাত্র ৬৫ বল খেলে নয়টি চার ও পাঁচটি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে ৮৫ রান করেন রয়। এতেই বোঝা যায়, অজি বোলারদের উপর কি পরিমাণ চড়াও ছিলেন এই ডানহাতি ওপেনার।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখে শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। তবে এ্যালেক্স ক্যারিকে নিয়ে শতাধিক রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় কাটিয়ে প্রতিরোধ গড়েন স্টিভ স্মিথ। মূলত তার ব্যাটে চড়েই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২২৩ রানের মাঝারি স্কোর গড়ে অস্ট্রেলিয়া। সর্বোচ্চ ৮৫ রান করে আউট হন সাবেক অজি ক্যাপ্টেন।

অন্যদিকে, ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড থেকেই দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিদায় নিতে হয়েছিল মর্গানের দলকে। এমন হতাশাজনক ঘটনাটি দলের ওয়ানডে ম্যাচের ধরন নিয়ে নতুন করে চিন্তাভাবনা করতে বাধ্য করেছিল ইংল্যান্ডকে। যাতে তারা সফলও হয়েছে।

মূলত এরপরই ওয়ানডেতে `নিজস্ব ঘরানার` ক্রিকেট খেলতে শুরু করে ইংলিশরা। অজি কোচ ট্রেভর বেলিস দায়িত্ব নিয়ে প্রথমবারের মত ইংল্যান্ডকে বিশ্বকাপের শিরোপা এনে দিতে শুরু থেকেই ছক কষা শুরু করেন। এতে দলের পরিবর্তনটাও এসেছে চোখে পড়ার মত।

ইয়ন মরগানের দারুণ নেতৃত্বে ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ স্থান দখল করে ইংল্যান্ড। দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর দারুণ নৈপুণ্যে বড় রান সংগ্রহ করাকে আবর্তন করেই এগিয়েছে ইংলিশরা। এখন তাদের চাওয়া সেমিফাইনাল নয়, শিরোপা। সেই লক্ষ্য পূরণে আজ অনেকটাই এগিয়েছে ইংল্যান্ড।

এদিকে ইংল্যান্ড ফাইনালে উঠতে পারলে বৃটেনে বিনামূল্যে ম্যাচটি সম্প্রচার করবে বলে ঘোষণা দেয় স্বাগতিক স্যাটেলাইট সম্প্রচারক স্কাই স্পোর্টস। এখন ১৪ তারিখ তাদের সেই ঘোষণা বাস্তবায়নের অপেক্ষা।

এনএস/এসি

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি