ঢাকা, শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

হ্যালো লিডার

আজকের লিডার ডা. আব্দুল আজিজ এমপি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:০০ ১০ নভেম্বর ২০১৯

সাধারণ মানুষ অনেক আশা নিয়ে ভোট দেন। ব্যালটে সিল দেয়ার মধ্য দিয়ে স্বপ্ন দেখেন পূর্ণাঙ্গ নাগরিক সেবা ভোগ করবেন। কিন্তু মানুষের সে আশা কি পূরণ হয়? অনেকাংশেই হয়তো হয় না। ক্ষমতার রাজনীতিতে যখন জবাবদিহিতা উধাও হতে বসেছে তখন একুশে টেলিভিশনের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ‘হ্যালো লিডার।’ নেতাদের ভুলে যাওয়া প্রতিশ্রুতিগুলো মনে করিয়ে দিয়ে তা বাস্তবায়নই হ্যালো লিডারের উদ্দেশ্য।

আজ রোববার রাত ১০টায় একুশে টেলিভিশনের জনপ্রিয় সাংবাদিক ড. অখিল পোদ্দারের মুখোমুখি হবেন এমপি আব্দুল আজিজ। যিনি ঢাকার শিশু হাসপাতালের সাবেক পরিচালক এবং প্রখ্যাত শিশুবিশেষজ্ঞ ও সার্জন। সিরাজগঞ্জ-৩ অর্থাৎ রায়গঞ্জ এবং তাড়াশ উপজেলা থেকে নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে কতটুকু কাজ করেছেন তার চুলচেরা বিশ্লেষণ রয়েছে একুশে টিভির অনুষ্ঠানটিতে।

অনুষ্ঠানের প্রযোজক হাসান সহিদ ফেরদৌস বলেন, হ্যালো লিডার একুশে টিভির ভিন্নমাত্রার জবাবদিহিতামূলক নতুন অনুষ্ঠান। যার উদ্দেশ্য জনক্ষমতায়ন এবং উন্নয়নের গতি সহায়ক। এটি সাপ্তাহিক অনুষ্ঠানের নবম পর্ব। গেল এপিসোডে হ্যালো লিডারের অতিথি ছিলেন বান্দরবানের উপজেলা চেয়ারম্যান এ কে এম জাহাঙ্গীর। যেখানে পার্বত্য এলাকার মানুষ ও পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর নানামাত্রিক সমস্যা তুলে ধরেছিলেন ড. অখিল পোদ্দার। আর এ কে এম জাহাঙ্গীর উত্তর দিয়েছেন তার দেয়া প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন প্রসঙ্গে।

একুশে টেলিভিশনের হেড অফ ইনপুট ড. অখিল পোদ্দারের সঞ্চালনায় আজকের হ্যালো লিডার অনুষ্ঠানে প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে চলনবিলসমৃদ্ধ এলাকাটির পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর নানান চাহিদা। আছে আদিবাসীদের না পাওয়ার বেদনার চিত্র।

এর আগে গাজীপুরের মেয়র এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম, কুষ্টিয়ার খোকসা-কুমারখালী আসনের এমপি ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎক সিরাজগঞ্জের এমপি প্রফেসর ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না, কেরাণীগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ, সিরাজগঞ্জের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, ভোলার বোরহানউদ্দিন-দৌলতখানের এমপি আলী আযম মুকুল, ঢাকার মেয়র আতিকুল ইসলাম অনুষ্ঠানে লিডারের আসনে ছিলেন।

ড. অখিল পোদ্দার জানান, অনুষ্ঠানটি রাত ২টায় ও পরদিন সোমবার সকাল ৭টায় পুণ:প্রচার হবে। ড. পোদ্দার আরও বলেন, এটি একটি জনক্ষমতায়নবিষয়ক অনুষ্ঠান। দুর্নীতি রোধ করে জনপ্রতিনিধিদের উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়নে বাধ্য করাই অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য, যা সংশ্লিষ্ট নেতার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিও ছিল। বিশেষ করে বিভিন্ন ভাতার কার্ডের নামে লুটপাট, ঠিকাদারিতে পুকুরচুরিসহ নানামুখি অনিয়ম বন্ধ করতেই জবাবদিহিমূলক এ অনুষ্ঠান।

উল্লেখ্য, গণমানুষের দুঃখ- কষ্ট ও সেবাবঞ্চনা নিয়ে এক যুগ ধরে ‘জনদুর্ভোগ’ শিরোনামে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রচার করে আসছেন অখিল পোদ্দার।

হ্যালো লিডারের গবেষক মোস্তাফিজুর রহমান অপু জানান, একুশে টেলিভিশনের এ অনুষ্ঠানটি সাধারণ মানুষের কথা বলার প্ল্যাটফরম। সুশাসন প্রতিষ্ঠায় অনুষ্ঠানটি সহায়ক হবে আশা করছি। উন্নয়ন ও অপরাধ দমনে ‘হ্যালো লিডার’ ইতোমধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে-এমন অভিমত অনুষ্ঠানের সহকারী প্রযোজক রাশেদুল হাসানের।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি