ঢাকা, রবিবার   ১৬ মে ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

ঈদের বাজারের উৎসবে ভাটা, ক্রেতা কম (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৩৬, ৪ মে ২০২১

করোনায় ঈদের বাজারে উৎসবে কিছুটা ভাটা পরেছে। করোনার প্রভাবে ক্রেতা কমেছে, সেই সঙ্গে কমেছে তাদের চাহিদাও। বিক্রেতারা জানালেন, এবার ঈদে বেশি দামের কাপড়ের প্রতি ক্রেতাদের চাহিদা কম। গরম আর করোনা কথা বিবেচনায় ক্রেতাদের আগ্রহ সুতির কাপড়ের প্রতি। আর পুরুষের পছন্দের তালিকার শীর্ষে আছে পাঞ্জাবি। 

গত বছরের মতো এবারও ঈদ বাজারে করোনার প্রভাব। করোনায় অনেক দিন মার্কেট বন্ধ থাকার পর স্বাস্থ্য বিধি মেনে খুলে দেয়া হয়েছে মার্কেট-শপিংমল।

অভিজাত শপিংমলগুলোতে ক্রেতা উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। গরমে ক্রেতাদের পছন্দ সুতির কাপড়।

ক্রেতারা জানালেন, সিম্পল সুতির মধ্যে যাতে আরামদায়ক হয় সেই পোশাক কিনতে এসেছি। আরেকজন জানান, মেয়ের জন্য কেনাকাটা করতে এসেছি, যে ড্রেসটা পড়লে কমফোর্ড ফিল করে এটার জন্য এসেছি।

পুরুষের প্রধান পছন্দ পাঞ্জাবি। আর নারীদের ঝোঁক থ্রি-পিসের দিকে।

পুরুষ ক্রেতারা জানান, পাঞ্জাবির জন্যই আসা, ঈদে তো বাঙালিরা পাঞ্জাবিটাই বেশি পছন্দ করে। এক নারী ক্রেতা জানান, আমি তো সব সময় থ্রি-পিস পড়ি, বাচ্চাদের নিয়ে শাড়ী পড়া হয় না। যার জন্য থ্রি-পিসটাই প্রেফার করবো।

দোকানিরা জানান, এবার ঈদ উৎসবে জমকালো পোষাকের প্রতি চাহিদা নেই বললেই চলে। এছাড়াও নতুন ডিজাইনের পোষাকও তুলতে পারেনি।

দোকান মালিকরা জানান, এখন পর্যন্ত বাচ্চা মালই বেশি কিনছে। কারণ মানুষ বড়দের জন্য না কিনলেও ঈদের সময় বাচ্চাদের জন্য কেনাকাটা করতে আসে। মহামারি চলছে তাতে সবার বাজাটেই ঘাটতি পড়েছে, তাই আগে যেমন চার-পাঁচ হাজার টাকায় ড্রেস কিনতো এখন হয়তো সেই বাজেটটা পনেরশ’ থেকে দু’হাজার। আগের তুলনায় মানুষের কেনার বাজেট অনেক কমে এসেছে।

করোনার পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কম সময়ে কেনাকাটা চলছে বলে জানান বিক্রেতা ও ক্রেতারা।
দেখুন ভিডিও :


এএইচ/ এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি