ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

গয়নার দোকানে ভীড় (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:০৯, ৮ মে ২০২১

দুয়ারে এসে পড়েছে খুশির ঈদ। করোনাকালেও তাই মার্কেটগুলোতে কেনাকাটার ধুম। গহনার বাজারেও আছে ক্রেতার ভিড়। গরম উপেক্ষা করেই পোশাকের সাথে মিলিয়ে গহনা কিনতে এক দোকন থেকে অন্য দোকানে ঘুরছেন ক্রেতারা। তারপরও বিক্রেতারা বলছেন, বাজার এবার মন্দা। 

করোনাকালে কড়া নাড়ছে আরও একটি ঈদ। একেতো মহামারি তার ওপর আবার তাপদাহ। এরই মাঝে রাজধানীর মার্কেটগুলোতে কেনাকাটার ধুম। বেশিরভাগের মুখেই মাস্ক আছে। তবে শারীরিক দূরত্ব মানার সুযোগ নেই একেবারেই। 

অনেকেরই কেনাকাটা প্রায় শেষ। ক্রেতারা জানান, জুতো-জামা কেনা শেষ। এবার পোশাকের সাথে মিলিয়ে গহনা কেনার পালা।

ক্রেতারা জানান, গরম যে পড়েছে তাতে রোজার মধ্যে কেনাকাটা করা অনেক কষ্টকর। কসমেটিকসের জন্য এসেছি, অন্য কেনাকাটা আগেই করে ফেলেছি। আরেকজন জানান, ড্রেস কেনার পর ম্যাসিং করে গহনাটা কিনবো।

ইমিটেশনের দিকেই ক্রেতার নজর। সেলফে সাজানো বাহারি ডিজাইনের চকচকে গহনা থরে থরে সাজানো।  

রঙ মিলিয়ে হাত কান আর গলার ভারি গহনা কিনছেন অনেকেই। কেউবা পরিবারের ছোট সদস্যদের জন্য কিনছেন চুলের ক্লিপ, নেইল পলিশ, লিপস্টিক। কেউবা কিনছেন প্রয়োজনীয় ব্যবহার্যের জিনিস।

ক্রেতারা জানান, ব্যাগ নিয়েছি, কসমেটিকস নিয়েছি আবার ড্রেস নিয়েছি। 

বাহারি নকশার চুরি, নানা রঙের লিপস্টিক তো আছেই। হাত রাঙাতে চাহিদা আছে মেহেদীর। 

তারা আরও জানান, মেহেদী নিয়েছি, ঈদ মানেই তো রঙে রাঙানো তাই মেহেদীটা বাবুর জন্য।

দোকানীরা জানান, শেষ সময়ে আমাদের কালার কসমেটিকসটা একটু বেশি যায়, যেমন- লিপস্টিক, আইলাইনার, মাসকারা, আইস্যাডো এগুলো।

তবে দোকানীরা জানালেন, এবার ব্যবসা জমেনি।

দোকানীরা আরও জানান, গহনা-কসমেটিকসের চাহিদা এখন অতোটা নেই। তবে টুকটাক চলছে বেবি আইটেমটা। রোজার মধ্যে যে বেচাকেনাটা ছিল সেটা এখন আমাদের আর নেই।

ঈদের ছুটি এবার লকডাউনে। তবে সবার আশা কেটে যাক মহামারিকাল, পরের ঈদে বিশ্ব ভাসুক খুশির বন্যায়। 
দেখুন ভিডিও :

এএইচ/ এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি