ঢাকা, শনিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, || অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

‘টেস্টে উন্নতি করাই মূল লক্ষ্য’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:৪০ ১৬ জানুয়ারি ২০২০

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ

গত ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ভরাডুবি না হলেও উদ্দেশ্য ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে হওয়া এ বিশ্বকাপে টাইগাররা জিতেছে মাত্র তিনটি ম্যাচ। মাশরাফিদের ব্যর্থতায় বলির পাঁঠা হয়েছেন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। তাকে বাদ দিয়ে রাসেল ডমিঙ্গোকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি।

দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচের অধীনেই শুরু হয়েছে বাংলাদেশের নতুন যাত্রা। যার শুরুটা ভালো হয়নি মোটেও। বছরটা শেষ হয়েছে হতাশার মধ্য দিয়ে। শ্রীলঙ্কায় দুই সংস্করণে ধবলধোলাই হয়েছে টাইগাররা। ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের কাছেও দল হেরেছে একমাত্র টেস্ট। আর ভারত সফরে গিয়ে দুই টেস্টের একটিতেও চতুর্থ দিনে যেতে পারেনি বাংলাদেশ।

উল্লেখযোগ্য সাফল্য বলতে ভারতের মাটিতে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জেতা। সিরিজ জেতারও সুযোগ ছিল টাইগারদের। কিন্তু তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে হাতের মুঠো থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়ে গেছেন কোহলি-রোহিতরা। সেই আফসোসটা এখনও তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে বাংলাদেশকে। প্রধান কোচ ডমিঙ্গোও আফসোস করলেন তা নিয়ে।

বিদায়ী বছরের পারফরম্যান্সকে শিক্ষা হিসেবে নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান এ কোচ। যা এ বছর কাজে লাগাতে চান তিনি। বুধবার ক্রিকেট বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটকে বাংলাদেশ কোচ বলেছেন, ‘গত বছরটা বাজে কেটেছে আমাদের। আশা করছি ওই ভুলগুলো থেকে শিক্ষা নিতে পারব। টেস্টে উন্নতি করতে আমাদের উচিত ভারতকে অনুসরণ করা।’

নতুন বছরের চ্যালেঞ্চ নিয়ে ডমিঙ্গো বলেছেন, ‘এটা রোমাঞ্চকর একটা বছর। আমরা মনে হয়, আটটা টেস্ট ম্যাচ পাচ্ছি (আসলে ১০টা)। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মতো বড় আসর আছে। টি-টোয়েন্টি সিরিজের কিছু সফরও আছে। এটা ব্যস্ত একটা বছর কিন্তু খুব উত্তেজনাপূর্ণ।’

নতুন বছরে ডমিঙ্গোর চ্যালেঞ্জ শুরু হচ্ছে পাকিস্তান সফর দিয়েই। তিন দফায় পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে টাইগাররা। আগামী সপ্তাহে প্রথম সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এই সিরিজের অনুপ্রেরণা তিনি খুঁজে নিচ্ছেন গত বছরের পারফরম্যান্স থেকেই।
 
ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমি এমন একটা দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছি যাদের বিশ্বকাপটা কেটেছে হতাশায়। একটা দলকে এসব বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করতে হয়। সম্ভবত দল খারাপ অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আপনি দেখুন, আমার সময়ে বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে আমরা বড় একটা পদক্ষেপ নিয়েছি। ভারত, আফগানিস্তান, শ্রীলঙ্কা সিরিজ আমাদের অনুপ্রেরণা জোগাবে।’

এদিকে, এ বছর ওয়ানডে ক্রিকেটকে তেমন গুরুত্ব দিতে চান না বাংলাদেশ কোচ। টি-টোয়েন্টি সংস্করণকেও বড় করে দেখছেন না তিনি। নতুন বছরে টেস্ট ক্রিকেটের উন্নতি করাই দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের মূল লক্ষ্য।

এনএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি