ঢাকা, রবিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

‘নিজের স্বামীকে একেবারেই চেনো না’, প্রিয়ঙ্কাকে খোঁচা কারিনার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:০০, ২৫ নভেম্বর ২০২১

‘‘পিসি (প্রিয়ঙ্কা চোপড়া), তুমি তোমার স্বামী নিক জোনাসকে একদমই চেনো না যা দেখছি।’’ বলিপাড়ার এক অনুষ্ঠানে প্রিয়ঙ্কার দিকে এমনই কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছিলেন করিনা কাপুর। তার কারণ জানতে গেলে একটু ফিরে দেখতে হবে।

এক সময়ে বলিউডের প্রথম সারিতে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন করিনা এবং প্রিয়ঙ্কা। হিন্দি ছবির সফল নায়িকা হিসেবে এই দু’জনের নামই ঠোঁটে আসত বলিপ্রেমীদের। একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও দুই অভিনেত্রীর মধ্যে সুসম্পর্ক ছিল। কিন্তু কয়েকটি ঘটনার পর তারা নাকি একে অপরের মুখ দেখতেন না।

বলি সূত্রের খবর, ঠাণ্ডা লড়াইয়ের মূল কারণ, অভিনেতা শাহিদ কপুর। করিনার সঙ্গে প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরে নাকি শাহিদ প্রিয়ঙ্কার সঙ্গে প্রেম করতেন।

কিন্তু সেই সম্পর্কের সমীকরণও গেল পাল্টে। কারিনা বিয়ে করলেন বলি অভিনেতা সইফ আলি খানকে। হলেন করিনা কপুর খান। প্রিয়ঙ্কা বিয়ে করলেন আমেরিকার পপ গায়ক নিক জোনাসকে। ব্যক্তিগত জীবনে সুখী তারা।

এমনই সময়ে বলি প্রযোজক করন জোহর তার একটি রিয়্যালিটি শো-এ এই দুই তারকাকে অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানান। খেলার অংশ হিসেবে করন তাদের স্বামীদের নিয়ে প্রশ্ন করতে থাকেন। নায়িকারা তাদের স্বামীদের সম্পর্কে কতটা ওয়াকিবহাল, তা যাচাই করতেই এই পরীক্ষা। কিন্তু প্রিয়ঙ্কা সেই পরীক্ষায় সফল হতে পারেন নি। নিকের গান চিনতে পারেননি তিনি।

সেই সময়ে মশকরা করে কারিনা বলেন, ‘‘পিসি, তুমি তোমার স্বামী নিক জোনাসকে একদমই চেনো না যা দেখছি।’’
প্রিয়ঙ্কা কিন্তু এক মুহূর্ত সময় না নিয়েই সেই মন্তব্যের জবাব দেন। বলেন, ‘‘আমি নিককে বিয়ে করেছি, ওর পেশাদার জীবনকে নয়। আর ওকে বিয়ে করার আগে গুগল করিনি।’’

সম্প্রতি নিক এবং প্রিয়ঙ্কার বিয়ে নিয়ে নানাবিধ প্রশ্ন উঠেছে। টুইটার, ইনস্টাগ্রামে প্রিয়ঙ্কা তার নাম থেকে স্বামীর এবং নিজের পদবী সরিয়ে দিতেই বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে নানা কথা উঠেছে। যদিও তার পরে ইনস্টাগ্রামে তারকা-দম্পতির প্রেমমাখা কথোপকথন দেখে সেই জল্পনায় ইতি পড়েছে। একইসঙ্গে নায়িকার মা জানিয়েছেন, এ সবই মিথ্যে রটনা।

সূত্র: আনন্দবাজার অনলাইন

এসবি 
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি