ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

‘পরমাণু সমঝোতার এই পরিণতির জন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:০৫ ৭ নভেম্বর ২০১৯

পরমাণু সমঝোতার আজকের পরিণতির জন্য এই সমঝোতা থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে যাওয়াকে দায়ী করলেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। বলেন, যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে এবং অন্যান্য স্বাক্ষরকারী দেশকে এটি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে এই সমঝোতাকে বর্তমান অচলাবস্থার মধ্যে ফেলে দিয়েছে। খবর পার্সটুডে’র।

রাশিয়া সফররত গ্রিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিকোস দেনিয়াসের সঙ্গে মস্কোয় এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ল্যাভরভ একথা বলেন। তিনি বলেন, পরমাণু সমঝোতা এখন যেখানে পৌঁছেছে তা নিয়ে রাশিয়া ভীষণভাবে উদ্বিগ্ন এবং মস্কোর এ উদ্বেগ শুরু হয়েছিল সেদিন যেদিন যুক্তরাষ্ট্র এই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়েছিল।

পরমাণু সমঝোতার ব্যাপারে ইউরোপের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের চাপের কথা উল্লেখ করে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওয়াশিংটনের চাপে পড়ে এ সমঝোতাকে অচলাবস্থার মধ্যে ঠেলে দেয়ার জন্য ইরানকে দায়ী করার চেষ্টা করছে ইউরোপীয় দেশগুলো।

ল্যাভরভ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র শুধু নিজে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে এই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যায়নি। সেইসঙ্গে অন্যান্য দেশকেও একই কাজ করার জন্য হুমকি দিচ্ছে।

গতকাল বুধবার থেকে ইরান ‘ফোরদু’ পরমাণু স্থাপনার সেন্ট্রিফিউজে গ্যাস ঢোকানোর প্রক্রিয়া শুরু করার পর রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ প্রতিক্রিয়া জানালেন।

ইরানের জাতীয় আণবিক শক্তি সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি ও প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানির নির্দেশে দুই হাজার কেজি ইউরেনিয়াম হেক্সাফ্লোরাইড বা ইউএফসিক্স গ্যাসের একটি সিলিন্ডার ‘ফোরদু’ ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র পরিদর্শকদের উপস্থিতিতেই এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হচ্ছে। পাশ্চাত্যের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া প্রতিশ্রুতিগুলোর বাস্তবায়ন ধাপে ধাপে স্থগিত রাখার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ইরান এ পদক্ষেপ নিল। এর মধ্যদিয়ে দেশটি এই প্রক্রিয়ার চতুর্থ ধাপ শুরু করল।

একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি