ঢাকা, রবিবার   ১৩ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮

পরিচ্ছন্নতা সংকট কাটাতে ইএসডিও’র প্রকল্প

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৫১, ১৭ মে ২০২১

ইকোসোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও) সম্প্রতি ওয়াটার এইড বাংলাদেশের অর্থায়নে রাজধানীর মিরপুরে নিম্মআয়ের কিছু এলাকায়  “পরিচ্ছন্নতা সংকট” (ওয়াশ ক্রাইসিস) নামে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। 

যার মূল উদ্দেশ ছিল নিম্মআয়ের পোশাক শ্রমিক এবং কিছু স্কুলে সুপেয় পানি পান, নিরাপদ পরিচ্ছন্ন পয়ঃব্যবস্থা, ও স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রয়োজনীয়তা বুঝানো ও তার অভ্যাস তৈরি করা। এটি শুরু হয় ২০১৮ সালে, তবে করোনা মহামারী আঘাত হানার পর এ প্রকল্পটির কিছু পরিবর্তন ও পরিমার্জন হয়েছে।

নিম্মআয়ের মানুষের মাঝে মহামারীকালিন পরিবর্তিত স্বাস্থ্যবিধি পালন ও তা সহজ করার জন্যে ইএসডিও ১৫০ জন কিশোরীকে “পরিবর্তনের দিশারী” হিসেবে প্রশিক্ষণ দিয়েছে। সে অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এসব প্রশিক্ষণার্থী নিম্মআয়ের এলাকায় মহামারী নিয়ে সচেতনতা তৈরি, সুপেয় পানি পান, নিরাপদ পরিচ্ছন্ন পয়ঃব্যবস্থা ও স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রয়োজনীয়তা বুঝানোসহ কিশোরীদের মাসিক ঋতুস্রাব সংক্রান্ত প্রচলিত সংস্কার ভাংগা নিয়ে কাজ করছে। 

প্রকল্পটি নিম্মআয়ের অন্তত ৭ হাজার মানুষের নিরাপদ পরিচ্ছন্ন পয়ঃব্যবস্থা, সুপেয়পানি প্রাপ্তি এবং সাবান দিয়ে হাতধোয়াসহ মাসিকের সময় পরিচ্ছন্ন থাকা নিশ্চিত করেছে। একইসংগে এসংক্রান্ত সেবা নিশ্চিত করণে প্রকল্পের অংশ হিসেবেই ইএসডিও ৫০ জন নারীকে উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করেছে, প্রশিক্ষণ দিয়েছে আরো ৩৫০ জন নারীকে। 

প্রকল্পটি নিয়ে ওয়াটার এইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান বলেন, “পরিবর্তনের দিশারী” হিসেবে কিশোরীদের বেছে নেয়ার কারণ হচ্ছে তারা খুব সহজেই অনুপ্রাণিত হয় এবং নিজ প্রজন্মকে পরিবর্তন করতে পারে। ইএসডিওর নির্বাহী পরিচালক ডঃ শহিদুজ্জামান বলেন, “আমরা চেষ্টা করেছি কিশোরীদের নেতৃত্বে নিয়ে আসতে এবং একাজে তারা সফল”।

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি