ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বন্ধুদের দিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, অতঃপর

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:১৪ ৩০ আগস্ট ২০১৯

নিজ বন্ধুদের দিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করিয়েছিল প্রেমিক। প্রেমিকের সামনেই ঘটেছিল গোটা ঘটনা। এরপর অসুস্থ অবস্থায় বাড়ির সামনে তাকে রেখে গিয়েছিল প্রেমিকই। যা মেনে নিতে পারেনি কিশোরী। বাড়ি ফিরে বিষ খেয়েছিল দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী। 

সপ্তাহ খানেকের লড়াই শেষে আজ শুক্রবার সকালে কলকাতা পিজি হাসপাতালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল কোলাঘাট গণধর্ষণকাণ্ডে নির্যাতিতা দশম শ্রেণির সেই ছাত্রী।

এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই মূল অভিযুক্ত ছাত্রীর প্রেমিক শুভম তুঙ্গসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ। ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল।

ঘটনাটি ঘটেছিল গত ২৪ আগস্ট শনিবার। সেদিন সন্ধ্যায় কোলাঘাটের বাগডিহা গ্রামে মাঠের ধারে প্রেমিকের সঙ্গে বসেছিল ওই দশম শ্রেণির ছাত্রী। তখনই প্রেমিককে গাছে বেঁধে ওই কিশোরীকে গণধর্ষণ করে চার দুষ্কৃতী। এরপর বাড়ি ফিরে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে মেয়েটি। উদ্ধার করে কিশোরীকে ভর্তি করা হয় স্থানীয় নার্সিংহোমে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়।

জানা গেছে, পাঁশকুড়াচাপদা গ্রামের শুভম তুঙ্গের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল যোগীবেড় গ্রামের দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর। গত তিন বছর ধরে তাদের ঘনিষ্ঠতা। মাস ছয়েক আগে শুভমকে বহিষ্কার করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। দুই পরিবারও বিষয়টি জানত। 

গত শনিবার সন্ধ্যায় টিউশনিতে যাওয়ার নাম করে বাড়িতে থেকে বেরিয়েছিল ওই নাবালিকা। তারপর রাস্তায় শুভমের সঙ্গে দেখা। এরপরই নির্মম অত্যাচারের শিকার হতে হয় ছাত্রীটিকে। যার জন্য প্রেমিকই মূলত দায়ী বলে অভিযোগ করে সে। 

এদিকে ছাত্রীর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমেছে গোটা পরিবারে। অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন তারা। সূত্র- জিনিউজ। 

এনএস/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি