ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ব্যাংকে আবগারি শুল্ক বাড়ানোর কারনে আমানতকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:০৭ ৬ জুন ২০১৭ | আপডেট: ১৪:১৮ ৬ জুন ২০১৭

ব্যাংকে আমানতের উপর কম সুদ এবং আবগারি শুল্ক বাড়ানোর কারণে আমানতকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, এরফলে মানুষ সঞ্চয়ে নিরুৎসাহিত হবে, বাড়বে এমএলএম সহ নন ব্যাকিং খাতে লেনদেন। যা দেশের সার্বিক অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলেও আশঙ্কা তাদের। 
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ি, সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংকে আমানতের সুদের হার কমেছে ব্যাপকহারে। এ’কারণে অর্থ জমা করে খুব বেশি লাভ পাচ্ছেন না গ্রাহকরা।

এ’ অবস্থায় প্রস্তাবিত বাজেটে এক লাখের বেশি টাকা ব্যাংকে রাখলে ৮শ’ টাকা আবগারি শুল্ক কেটে রাখার নিয়ম করা হয়েছে। এর সাথে রয়েছে ব্যাংকের সার্ভিস চার্জ। এক লাখ টাকা জমা রাখলে ব্যাংকের সার্ভিস চার্জ ৫৭৫ ও আবগারি শুল্ক ৮শ’ টাকাসহ মোট ১৩শ’ ৭৫ টাকা কাটা যাবে। অর্থাৎ এক লাখ টাকা ব্যাংকে জমা করে স্বল্প সময়ের মধ্যে তুলে নিলে পাওয়া যাবে ৯৮ হাজার ৬শ’ ২৫ টাকা। তাই বাস্তবতা বিবেচনায় আবগারি শুল্ক বাতিলের দাবি জানিয়েছেন গ্রাহকরা।

এমন অবস্থায় গ্রাহকদের বিভিন্ন প্রশ্নের মুখোমুখি হচ্ছেন ব্যাংক কর্মকর্তারা।
সাধারণ মানুষকে ব্যাংকমুখি করা ও জাতীয় সঞ্চয় বাড়াতে আবগারি শুল্কের বিষয়টি পুনর্বিবেচনার দাবি জানান ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।
অর্থনীতিবিদ ও সাবেক ব্যাংকাররা বলছেন, আবগারি শুল্ক বৃদ্ধির কারণে দেশের সার্বিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হতে পারে।
হুন্ডি, এমএলএম সহ অবৈধ পথে লেনদেন বেড়ে যাওয়ারও আশংকা করছেন তারা।

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি