ঢাকা, বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ভারতের সঙ্গে পরমাণু যুদ্ধ হতে পারে: ইমরান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:০৩ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৯:০৫ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে ভারত এবং পাকিস্তানের উত্তাপ বাড়ছেই। এর মধ্যেই ফের পরমাণু যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে হেরে গেলে তখন এ যুদ্ধ হতে পারে।

ইমরান খান বলেন, ‘যখন একটি পরমাণু শক্তিধর দেশ আমৃত্যু লড়াই করে তখন তার কিছু প্রভাব তো পড়বেই।’

সম্প্রতি আল জাজিরা টিভি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকার দেন ইমরান। তিনি সেখানে বলেন, ‘‘পাকিস্তান কখনই যুদ্ধ শুরু করবে না, এবং এটা পরিষ্কার যে আমি এক জন শান্তিবাদী। আমি যুদ্ধ-বিরোধী। আমি বিশ্বাস করি যুদ্ধ কোনও সমস্যারই সমাধান করতে পারে না।’’

তিনি বলেন, “আমার কাছে এটা পরিষ্কার যে, দুটি পরমাণু শক্তিধর দেশের মধ্যে যদি প্রথাগত যুদ্ধ হয়, তা হলে পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহারের দিকে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থাকে। 

আমি যদি পাকিস্তানের কথা বলি, আল্লাহ না করুন, আমরা যদি প্রথাগত যুদ্ধে হারের দোরগোড়ায় পৌঁছে যাই, যদি একটা দেশের সামনে এক দিকে আত্মসমর্পণ এবং আরেক দিকে মৃত্যু এই দুই পছন্দ থাকে। তা হলে আমি জানি, পাকিস্তান স্বাধীনতার জন্যই আমৃত্যু লড়াই করবে। আর যখন একটি পরমাণু শক্তিধর দেশ আমৃত্যু লড়াই করে তখন তার কিছু প্রভাব পড়বেই।’’

ইমরান আরও বলেন, ‘‘এমন যুদ্ধ হলে তার প্রভাব এই উপমহাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে যাবে।’’ দু’দেশের মধ্যে শান্তি রক্ষার জন্যই কাশ্মীর ইস্যুকে আন্তর্জাতিক মহলে তিনি পৌঁছে দিতে চান বলে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ইমরান।

সাক্ষাৎকারে ইমরান দাবি করেন, কূটনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমে কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সঙ্গে বিবাদ মিটিয়ে সভ্য প্রতিবেশীর মতো থাকার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেই প্রচেষ্টায় খামতি হল কেন? ইমরানের ব্যাখ্যা, ‘‘ভারত পাকিস্তানকে অর্থনৈতিক ভাবে দেউলিয়া করার চেষ্টা চালাচ্ছে।’’

এসি
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি