ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মিয়ানমারকে বয়কটের আহ্বান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:২০ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিচার শুরু হচ্ছে আজ মঙ্গলবার। স্থানীয় সময় দুপুরে নেদারল্যান্ডসের হেগে আন্তর্জাতিক আদালতে প্রথম শুনানি হবে। এ শুনানির আগে রোহিঙ্গাদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বৈশ্বিকভাবে মিয়ানমারকে বয়কটের ডাক দিয়ে এক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিশ্বের ১০ দেশের ৩০টি মানবাধিকার, শিক্ষাবিদ এবং পেশাদারদের সংগঠন।

এত বিবৃতিতে বিশ্বের বিভিন্ন সংস্থা, বিদেশি বিনিয়োগকারী, পেশাদার এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনকে মিয়ানমারের সঙ্গে প্রাতিষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আহ্বান জানিয়েছে জার্মানভিত্তিক ফ্রি রোহিঙ্গা কোয়ালিশন্স।

সংগঠনটি বলছে, এই বয়কটের উদ্দেশ্য মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি সরকারের ওপর অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, কূটনৈতিক এবং রাজনৈতিক চাপ তৈরি করা।

অন্যদিকে, রোহিঙ্গাদের একাধিক প্রবাসী গোষ্ঠী দ্য হেগের আদালতে শুনানি চলাকালে বিক্ষোভের পরিকল্পনা করছে। মিয়ানমার সরকারের সমর্থনেও সেখানে সমাবেশের পরিকল্পনা করছেন মিয়ানমারের নাগরিকরা।

এদিকে, গাম্বিয়ার করা মামলায় আদালতে হাজির হচ্ছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সুচি। পর্যবেক্ষণ করবেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিরাও। প্রথম দিন বক্তব্য রাখবে মামলার বাদী গাম্বিয়া।

দেশটির পক্ষে উপস্থিত থাকবেন অ্যাটর্নি জেনারেল ও আইনমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু। শুনানিতে মিয়ানমারের পক্ষে থাকছেন অং সান সু চি। তারা বক্তব্য রাখবে আগামীকাল বুধবার।

নিজ নিজ বক্তব্য পেশ করতে দু’পক্ষই তিন ঘণ্টা করে সময় পাবে। আদালতে দুদেশের পাশাপাশি বাংলাদেশ ও কানাডার প্রতিনিধিরাও উপস্থিত থাকবেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি তল্লাশি চৌকিতে বিদ্রোহীদের হামলার পর রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত নিধন অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। ব্যাপক হত্যাকাণ্ড, ধর্ষণ ও নির্যাতনের মুখে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। ওই ঘটনার দুই বছরের বেশি সময় পর গত ১১ নভেম্বর অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) সমর্থনে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ দায়ের করে গাম্বিয়া।

একে//

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি