ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সততার নজির গড়ে ফিরিয়ে দিলেন স্বর্ণালঙ্কার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ২০:২৮ ২ ডিসেম্বর ২০১৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার অটোরিকশায় কুড়িয়ে পাওয়া স্বর্ণের গহনা থাকা ব্যাগ অক্ষত অবস্থায় মালিকের কাছে ফিরিয়ে দিলেন লতিফা বেগম নামে এক নারী। ব্যাগের মধ্যে ছিল তিনটি স্বর্ণের চেইন, এক জোড়া নূপূর, মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ও কসমেটিক্স। লতিফা বেগম সদর উপজেলার বালুগ্রাম তাহিরপুরের আব্দুস সালামের স্ত্রী। 

সোমবার দুপুরে ব্যাগটি প্রকৃত মালিক শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়েনের আখিরা গ্রামের তানিয়া বেগমের কাছে হস্তান্তর করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) টিএম মোজাহিদুল ইসলামের উপস্থতিতে তার অফিস কক্ষে এ হস্তান্তর করা করা হয়। তার সততায় মুগ্ধ হয়ে এ সময় লতিফা বেগমের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তানিয়া ও তার স্বামী মোতাল্লেব হোসেন। 
 
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এএসআই জাহাঙ্গির জানান, ব্যাগের মালিক তানিয়া বেগম ১৩ নভেম্বর মল্লিকপুর থেকে মহিপুর আসার পথে আটোতে ব্যাগটি রেখে নেমে যান। ব্যাগের মধ্যে ছিল তিনটি স্বর্ণের চেইন, এক জোড়া নূপূর, মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ও কসমেটিক্স। এরপর থানায় জিডি করেন। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে পুলিশ লতিফা বেগমের কাছে যান। অক্ষত অবস্থায় ব্যাগটি ফিরিয়ে দেয়া হয়। অটোতে কুড়িয়ে পাওয়া ব্যাগটিতে কোন জিনিসপত্র নষ্ট করেনি লতিফা। তার কথা চিরদিন মনে রাখবেন তিনি। লতিফা বেগমের সততার দৃষ্টান্ত অন্যান্যরাও অনুকরণ করবে বলে তিনি আশা করেন।
 
লতিফা বেগম জানান, কুড়িয়ে ব্যাগটি তিনি হাতে না নিলে হয়তো অন্য কেউ নিয়ে যেত। প্রকৃত মালিককে ব্যাগটি ফেরত দিতে পেরে আনন্দ লাগছে তার। 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম জানান, এ ধরনের একটি ঘটনা শুনেছেন। সৎ  লোক আছে বলেই সমাজটা টিকে রয়েছে। এ ধরনের মানুষের সংখ্যা যত বাড়বে, সমাজ তত অপরাধ মুক্ত হবে।

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি