ঢাকা, শনিবার   ০৩ জুন ২০২৩

সন্দ্বীপ উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী মাঈন উদ্দিন মিশন বিজয়ী 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:৪৭, ২৫ মে ২০২৩ | আপডেট: ০০:৫৫, ২৬ মে ২০২৩

চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফলে জয়ী হয়েছেন নৌকার প্রার্থী মাঈন উদ্দিন মিশন। 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মাইন উদ্দিন মিশন নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ২৪২ ভোট, অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ১৬ হাজার ৩৭৩ ভোট। 

নিকটতম প্রার্থী থেকে ১১৮৬৯ ভোট বেশি পেয়ে নৌকা নিয়ে প্রতীকে মাঈন উদ্দিন মিশন বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। মোট ভোটারের মধ্যে এই নির্বাচনে মাত্র ১৯ শতাংশ ভোট প্রয়োগ করা হয়েছে।  KSRM

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) রাতে এই তথ্য নিশ্চিত করেন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও চট্টগ্রাম জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন।

এছাড়াও জাসদ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম মাহমুদ মশাল প্রতীকে পেয়েছেন ৭৩ ভোট ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মশিউর রহমান বেলাল দোয়াত কলম প্রতীকে ৮৬ ভোট পেয়েছেন। ৪০৯টি ভোট বাতিল করা হয়েছে। নির্বাচনে মোট ভোট পড়েছে ৪৪ হাজার ৬৯৩টি।  

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্যালট পেপারে ৮৬টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে মোট ৫৭২টি বুথে স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোটাররা ভোট প্রদান করেন। অবাধ, সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রার্থী ও ভোটাররা। 

বিকেলে সোয়া চারটার দিকে নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও চট্টগ্রাম জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সন্দ্বীপ উপজেলায় পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। আমাদের ৮৬টি কেন্দ্রতে এক মুহূর্তের জন্য ভোট বন্ধ করতে হয়নি।

এই উপজেলায় ১৫টি ইউনিয়ন পরিষদ ও একটি পৌরসভা মধ্যে মোট ভোটার হলো মোট ২ লাখ ৩৯ হাজার ৬১০ জন ভোটার। এর মধ্যে  ১ লাখ ২১ হাজার ৭৩৫ জন পুরুষ এবং ১ লাখ ১৭ হাজার ৮৭৫ জন মহিলা। 

চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হলেও মূল লড়াই হয় আওয়ামী লীগের সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈন উদ্দিন মিশন এবং স্বতন্ত্র চেয়ারম্যানপ্রার্থী উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সহসভাপতি ও সাবেক পৌর প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলামের মধ্যে।

এর আগে জাসদ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম মাহমুদ (মশাল) ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মশিউর রহমান বেলাল (দোয়াত কলম) আনারস প্রতীককের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন করেছেন। দিনভর কঠোর অবস্থানে ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সন্দ্বীপে বহিরাগতদের প্রবেশ ঠেকাতে বুধবার (২৪ মে) রাতে তল্লাশি করা হয়। 

একই সঙ্গে ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে আসতে পারে এবং কেন্দ্রের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নির্বাচনে ৭৯৭ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়। এছাড়া মোতায়েন করা হয় ৬ প্লাটুন বিজিবি ও ৫ প্লাটুন কোস্টগার্ড। 

উল্লেখ্য, গত ২৩ জানুয়ারি সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার শাহজাহান বি.এ এর  মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়।

কেআই//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি