ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সাদেক হোসেন খোকার গুলশানের বাড়ি বাজেয়াপ্ত, বাজেয়াপ্তের প্রক্রিয়া চলছে ১শ’ একর জমির

প্রকাশিত : ১৯:৩৬ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | আপডেট: ২০:১৬ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬

ঢাকার সাবেক মেয়র, বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকার গুলশানের বাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছে সরকার। আর গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জে খোকার নামে থাকা ১শ’ একর জমি বাজেয়াপ্তের প্রক্রিয়া চলছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় খোকার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন। গত বছরের ২০ অক্টোবর ওই মামলায় খোকাকে ১৩ বছরের কারাদন্ড দেয় আদালত। একইসাথে তার অবৈধ সম্পদ বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দেয়া হয়। ২০০৮ সালের ২ এপ্রিল দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদক বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকার বিরুদ্ধে গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে রাজধানীর রমনা থানায় মামলা করে। ওই বছরের পহেলা জুলাই তার ছেলে ও মেয়ের নাম বাদ দিয়ে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। গত বছরের ২০ অক্টোবর ওই মামলায় খোকাকে ১৩ বছরের কারাদন্ড দেয় আদালত। একইসাথে অবৈধভাবে ১০ কোটি ৫ লাখ ২১ হাজার ৮৩২ টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন উল্লেখ করে ওই সম্পদ রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করারও নির্দেশ দেয়া হয়। রায় ঘোষণার সময় থেকে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন খোকা। তাকে পলাতক দেখিয়ে এ মামলার বিচার চলে। দুদকের মামলার রায়ের সূত্র ধরেই বুধবার খোকার গুলশানের ৫ কাঠা জমি ও তার উপর নির্মিত ৬ তলা ভবন বাজেয়াপ্তের নোটিশ ঝুলিয়ে দেন ঢাকার জেলা প্রশাসক। একইসাথে গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জে খোকার নামে থাকা শতাধিক একর জমি বাজেয়াপ্তের প্রক্রিয়াও শুরু করে গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এ’ ঘটনাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলক মন্তব্য করে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা সাদেক হোসেন খোকা বলেছেন, দুদকের মামলায় তার অনুপস্থিতিতে রায় হয়েছে। আইনজীবী নিয়োগ করতে দেয়া হয়নি বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি