ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৫ ১৪২৮

স্বাভাবিক হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরের কার্যক্রম (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:০৫, ৭ জানুয়ারি ২০২১ | আপডেট: ১৬:২৯, ৭ জানুয়ারি ২০২১

করোনা সংক্রমণের বিরূপ প্রভাবের মধ্যেও চট্টগ্রাম বন্দরে ২০২০ সালে কন্টেইনার উঠানামা হয়েছে ২৮ লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৭টি। তবে, ২০১৯ সালে এ সংখ্যা ছিলো ৩০ লাখ ৮৮ হাজার ১৮৭। আর শীর্ষ শত বন্দরের তালিকায় চট্টগ্রামের অবস্থান ছিলো ৫৮। কর্তৃপক্ষের নানা উদ্যোগে বন্দর কার্যক্রম আবারও স্বাভাবিক হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। 

চট্টগ্রাম বন্দরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে মোট কন্টেইনার উঠানামা হয়েছে ৩০ লাখ ৮৮ হাজার ১৮৭ ইউনিট। করোনা মহামারিতে ২০২০ সালে এই সংখ্যা নেমে আসে ২৮ লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৭ ইউনিটে। 

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব ওমর ফারুক বলেন, সারাদেশের মিল-কারখানা কিছুদিনের জন্য বন্ধ ছিল, যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ ছিল। সে সময়ে চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ আগমন সংখ্যা কম ছিল, মালামাল হেল্ডিংও কম ছিল। 

বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের পরিচালক আবদুল্লাহ জহির বলেন, এক্সপোটার-ইম্পোটার, বিভিন্ন ব্যাংক এবং সরকারি সংস্থাগুলোকে সমন্বয় করে ইম্পোর্ট এবং এক্সপোর্ট যাতে সহজীকরণ হয় এ বিষয়টা খেয়াল রাখতে হবে।

গত এক দশকের বেশি সময় ধরে চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডেলিং প্রবৃদ্ধির হার ছিল উর্দ্ধমুখী। বাড়ছিলো পণ্যবাহী জাহাজ আসার পরিমাণ। ২০২০ সালে করোনার বিরূপ প্রভাবে নেতিবাচক প্রবৃদ্ধি হলেও বন্দরে জাহাজ এসেছে ৩ হাজার ৭২৮টি। যা গত বছরের তুলনায় ৭৯টি কম।

বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি শফিকুল ইসলাম জুয়েল বলেন, বন্দর কর্তৃপক্ষ, আমরা যারা শিপিং লাইনে আছি, বার্থ অপারেটর আছে- সবাই মিলে যদি পদক্ষেপ নেই তাহলে অর্থনীতির যে সমস্যা হয়েছে তা থেকে উতরে যাব।

সমস্যা মোকাবেলায় নানা ব্যবস্থা নেয়ায় বন্দর আগের অবস্থানে ফিরে আসছে বলে দাবি কর্মকর্তাদের।  

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব ওমর ফারুক বলেন, আমরা বিভিন্ন ট্রেড বডিদেরকে যাবতীয় সুবিধা দিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি আগামী বছর আমাদের হেনলিং পূর্ববর্তীর চেয়ে বৃদ্ধি পাবে।

লন্ডনভিত্তিক শিপিং বিষয়ক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম লয়েডস লিস্টের জরিপ অনুযায়ী ২০১৯ সালে বিশ্বের শীর্ষ একশটি বন্দরের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দর বর্তমানে ৫৮তম অবস্থানে উঠে আসে। যা তার আগের বছরের তুলনায় ৬ ধাপ এগিয়েছিলো।
ভিডিও :

 

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি