ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

ঢাকাকে হারিয়ে প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখলো চট্টগ্রাম

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:০৪, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ওপেনার তানজিদ হাসানের ব্যাটিং নৈপুন্যে বিপিএল’র প্লে-অফের দৌড়ে বেশ ভালোভাবেই টিকে থাকলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।  দুর্দান্ত ঢাকাকে ১০ রানে হারিয়েছে চট্টগ্রাম। জয় দিয়ে আসর শুরুর পর টানা ১১ হার দিয়ে এবারের বিপিএল শেষ করলো ঢাকা।

এই জয়ে ১১ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থস্থানে উঠলো চট্টগ্রাম। লিগ পর্বে সব ম্যাচ শেষে অর্থাৎ ১২ খেলায় ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে বিপিএল শেষ করলো ঢাকা। চট্টগ্রামের জয়ে প্লে-অফে উঠার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল গতবারের রানার্স-আপ সিলেটের।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ঢাকার বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২৪ রানে ২ উইকেট হারায় চট্টগ্রাম। ইনিংসের প্রথম বলে সৈকত আলিকে খালি হাতে বিদায় করেন ঢাকার অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন। চতুর্থ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার জশ ব্রাউনকে ১১ রানে থামান পেসার তাসকিন আহমেদ।

শুরুতে চাপে পড়া চট্টগ্রামকে ম্যাচে ফেরান তানজিদ ও নিউজিল্যান্ডের টম ব্রুস। তৃতীয় উইকেটে ৬৮ বলে ৯৫ রান যোগ করেন তারা। জুটি গড়ার পথে এবারের আসরে দ্বিতীয় হাফ-সেঞ্চুরি স্বাদ নিতে ৩৬ বল খেলেন তানজিদ।

তানজিদের হাফ-সেঞ্চুরির পর সাজঘরে ফিরেন ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪৮ রান করা ব্রুস।

১৬তম ওভারে দলীয় ১১৯ রানে ব্রুস ফেরার পর চট্টগ্রামের রান সচল রাখেন তানজিদ। ১৯তম ওভারে তানজিদকে আউট করেন পেসার শরিফুল ইসলাম। ১টি চার ও ৬টি ছক্কায় ৫১ বলে ৭১ রান করেন তানজিদ। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৫৯ রানের সংগ্রহ পায় চট্টগ্রাম। ঢাকার শরিফুল ও তাসকিন ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে খেলতে নেমে ৯ রানে ২ উইকেট হারায় ঢাকা। ইংল্যান্ডের এডাম রসিংটনকে ১ ও সাব্বির হোসেনকে শূন্যতে আউট করেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক শুভাগত।

শুরুতেই চাপে পড়া ঢাকাকে লড়াইয়ে ফেরান ওপেনার মোহাম্মদ নাইম ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যালেক্স রস। ৪৬ বলে ৫১ রানে জুটি গড়েন তারা। ৩টি চারে ২৯ রান করা নাইমকে থামিয়ে চট্টগ্রামকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন পেসার শহিদুল ইসলাম।

পাঁচ নম্বরে নামা জিম্বাবুয়ের সিন উইলিয়ামস ৯ রানে ফেরেন।  ৩৮ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করেন রস। ১৭তম ওভারে পেসার সালাউদ্দিন শাকিলের বলে আউট হন ৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৪৪ বলে ৫৫ রান করা রস।

রস যখন ফিরেন তখন ১৮ বলে ৪২ রান দরকার পড়ে ঢাকার। কিন্তু শেষ ১৮ বলে ৩১ রান তুলতে পারেন মোসাদ্দেক ও ইরফান শুক্কুর। ৫টি চারে ১৮ বলে অনবদ্য ২৯ রান করেন মোসাদ্দেক। ৮ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন ইরফান। 

চট্টগ্রামের শুভাগত ২টি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন তানজিদ হাসান (চট্টগ্রাম)।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি