ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪

কে হচ্ছে এবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন?

প্রকাশিত : ১৮:৪৭, ৮ জুলাই ২০১৯

চলতি ক্রিকেট বিশ্বকাপের লিগপর্ব শেষ হওয়ার দু’দিন আগেই ফাইনালের একটি কল্পিত রূপরেখা তৈরি করে ফেলেছিলেন সাবেক ইংলিশ ক্যাপ্টেন মাইকেল ভন। অঙ্ক কষে দেখিয়ে দিয়েছিলেন যে, ফাইনালে দেখা হবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু ভনের সে কল্পিত ছক কল্পনার রাজ্যেই থেকে গেল।

তবে ভনের কল্পিত ছবি বাস্তবে মঞ্চায়িত হতেই পারতো। হয়নি এক প্রোটিয়াদের কারণে। নিজেদের ভরাডুবির বিশ্বকাপের শেষটায় এসে অস্ট্রেলিয়াকে মরণকামড় দিয়ে সব গড়বড় করে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

গেল ৬ জুলাই ওল্ড ট্রাফোর্ডে লিগপর্বের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ১০ রানে হেরে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সামনে পড়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। আর তাতেই ভেসে গেছে ভনের কল্পিত ছক।

এর ফলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে সেমিতে ভারত পেয়েছে নিউজিল্যান্ডকে। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডেই মঙ্গলবার (৯ জুলাই) প্রথম সেমিফাইনালে শীর্ষ বনাম চতুর্থের লড়াইয়ে কিউইদের মুখোমুখি ভারত। আর ১১ জুলাই বার্মিংহামের এজবাস্টনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে দেখা হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের।

কিন্তু ফাইনালের আগেই প্রশ্ন উঠেছে- দ্বাদশ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হচ্ছে কে? সাবেক চ্যাম্পিয়নদের কেউ, নাকি নতুন চ্যাম্পিয়ন খুঁজে পাবে ক্রিকেটবিশ্ব? এর উত্তর অবশ্য ১৪ জুলাই ফাইনাল ম্যাচ শেষেই মিলবে। কিন্তু তার আগে চলুন দেখে নেয়া যাক, কে হতে পারে সেই কাঙ্ক্ষিত চ্যাম্পিয়ন!

এবারের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে বেশিই এগিয়ে আছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। তবে শেষ ম্যাচে প্রোটিয়াদের ওই প্রত্যাঘাতে বড় একটা ক্ষতি হয়েছে অজিদের। কেননা, শেষ ম্যাচের আগে অস্ট্রেলিয়াই ছিল শীর্ষে। এক পয়েন্টের ব্যবধানে পিছিয়ে দুইয়ে ছিল ভারত। দু’দলই চেয়েছিল টেবিলের চতুর্থ দল হিসেবে সেমিফাইনালে জায়গা করে নেয়া নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হতে।

কারণ ছন্দে ফেরা ইংল্যান্ডের চেয়ে টানা তিন ম্যাচে হারা কিউইদেরকে বেশি সহজ প্রতিপক্ষ বলেই মনে করছে সবাই। সেমিতে ইংল্যান্ডকে এড়াতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শুধু জিতলেই চলত অস্ট্রেলিয়ার, কিন্তু পারেনি।

এদিকে শীর্ষ দল হিসেবে সেমিতে ওঠায় ভারত পেয়ে গেছে কাঙ্ক্ষিত প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডকে। আর অস্ট্রেলিয়ার সামনে এখন কঠিন চ্যালেঞ্জ। ফাইনালে উঠতে হলে তাদের হারাতে হবে প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডকে।

প্রতিপক্ষের মতো সেমির মঞ্চও চোখ রাঙাচ্ছে অজিদের। এজবাস্টনে ২০০১ সালের পর আর জয়ের দেখা পায়নি ক্যাঙ্গারুরা। বিপরীতে এই মাঠে তিন সংস্করণ মিলিয়ে শেষ ১০ ম্যাচেই জিতেছে ইংল্যান্ড।

তবে লিগপর্বে লর্ডসে ইংল্যান্ডকে হারানোর স্মৃতি টাটকা থাকায় ব্লকবাস্টার সেমিফাইনাল নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তার কথায়, ‘কোথায় কখন কার সঙ্গে খেলা তাতে কিছু যায় আসে না। কারণ বিশ্বকাপ জিততে হলে সব দলকেই হারাতে হবে। লিগপর্বে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভালো খেলার স্মৃতি আমাদের আরও উজ্জীবিত করবে। এ মুহূর্তে ইংল্যান্ড সত্যি খুবই ভালো ফর্মে আছে। সুতরাং আমাদের একেবারে নিখুঁত ও সেরাটা খেলতে হবে।’

তবে ফিঞ্চ কিন্তু আসল কথাটাই বলেননি। ইতিহাস বলে, বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কখনও হারেনি অস্ট্রেলিয়া!

এরপর আসা যাক ভারতের কথায়। সেমিতে কিউইদের অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষ বলা হলেও তারা কিন্তু মোটেও তা নয়। সাইলেন্ট কিলার বলতে যা বোঝায়, বর্তমান কেন উইলিয়ামসনের দলটি একেবারে তাই। গ্রুপ পর্বে দারুণ ছন্দে থাকা বিরাট বাহিনীর বিপক্ষে কিউইদের ম্যাচটি যদিও বৃষ্টিতে ভেসে যায়।

তবুও সেমিতে ছেড়ে কথা বলবে না ব্ল্যাকহর্সরা। যদিও টানা তিন ম্যাচ হেরে কিছুটা বিমর্শ কিউইরা। ফাইনালে যেতে ভারতকে মরণ ছোবল মারতে প্রস্তুত তারা। অন্যদিকে শীর্ষস্থানে থাকা ভারতও সবদিক থেকে রয়েছে দারুণ ছন্দে। টুর্ণামেন্টে এখন পর্যন্ত এক ইংল্যান্ডকে ছাড়া সব দলকেই হারিয়েছে কোহলি-ধোনিরা। ফলে এবারের শিরোপার সবচেয়ে বেশি দাবীদার একমাত্র এশিয় এই পরাশক্তিরই।

সেক্ষেত্রে সেমিতে কিউইদের হারিয়ে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া বা ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা ভারতেরই বেশি। তবে আরেকটু বাড়িয়ে বললে ফাইনালে ইন্দো-অজি লড়াই দেখতেই মুখিয়ে আছে সবাই।

তাই সবদিক পর্যালোচনা করে দেখা যাচ্ছে, সাবেক চ্যাম্পিয়নদের কারো একজনের হাতেই উঠতে যাচ্ছে দ্বাদশ বিশ্বকাপের ট্রফিটি। সেক্ষেত্রে তৃতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়ন হতে পারে ভারত। কেননা, গ্রুপ পর্বেই অজিদেরকে হারানোর সুখস্মৃতি আছে কোহলিদের। আবার অস্ট্রেলিয়ার ঘরে শোভা পেতে পারে আরও একটি বিশ্বট্রফি!

প্রথম সেমিফাইনাল

৯ জুলাই : ভারত ও নিউজিল্যান্ড (ওল্ড ট্রাফোর্ড)

দ্বিতীয় সেমিফাইনাল

১১ জুলাই : অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড (এজবাস্টন)

দুটি ম্যাচই শুরু বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে।

এনএস/এসি

 


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি