ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১, || চৈত্র ২৯ ১৪২৭

আইপিএলের ফাইনালে মুম্বাইর মুখোমুখি দিল্লি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৫৪, ৯ নভেম্বর ২০২০

আইপিএলের ১৩তম আসরের শুরু থেকেই মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও দিল্লি ক্যাপিটালসের মধ্যে শীর্ষ স্থান নিয়ে প্রতিযোগিতা চলছিল। মুম্বাই আজ পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠছে তো কাল তাদের টপকে দিল্লি বসছে ওই স্থানে। শেষ পর্যন্ত এই দুই দলই মরুর বুকে মঙ্গলবার ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে।

রোববার আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ১৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। প্রথমে দিল্লি ব্যাট করে ৩ উইকেটে ১৮৯ রান তোলে। জবাবে ১৭২ রানে শেষ হয় হায়দরাবাদের ইনিংস। 

রান তাড়া করতে নেমে ৪৪ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে হায়দরাবাদ। ডেভিড ওয়ার্নার ২, প্রিয়াম গার্গ ১৭ ও মানিশ পান্ডে ২১ রান করে ফেরেন। সেখান থেকে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন কেন উইলিয়ামসন ও জেসন হোল্ডার। উইলিয়ামসনের সঙ্গে ৪৬ রানের জুটি গড়ে আউট হন হোল্ডার। 

পঞ্চম উইকেটে উইলিয়ামসন ও আব্দুল সামাদ ৫৭ রানের জুটি গড়েন। দলকে নিয়ে যেতে থাকেন জয়ের পথে। কিন্তু ১৪৭ রানের মাথায় উইলিয়ামসন আউট হলে জয়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে যায়। ৪৫ বল খেলে ৫ চার ও ৪ ছক্কায় ৬৭ রান করে যান উইলিয়ামসন। 

তারপরও শেষ দিকে চেষ্টা চালান সামাদ ও রশিদ খান। বাউন্ডারি, ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ব্যবধান কমিয়ে আনেন তারা। কিন্তু দুজনই আউট হলে আর লক্ষ্য ছোঁয়া হয়নি হায়দরাবাদের। বল হাতে দিল্লির কাগিসো রাবাদা এক ওভারে ৩ উইকেটসহ মোট ৪ উইকেট নেন। ৩টি উইকেট নেন মার্কাস স্ট্রয়নিস।

তার আগে দিল্লিকে বড় সংগ্রহ এনে দেন শিখর ধাওয়ান। যদিও তিনি তিনবার জীবন ফিরে পেয়েছেন। ধাওয়ান ৫০ বলে সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন। এ ছাড়া শিমরন হেটমায়ার ২২ বলে অপরাজিত ৪২ রান করে দলীয় সংগ্রহকে ১৮৯ পর্যন্ত নিয়ে যান। স্ট্রয়নিসের ব্যাট থেকে আসে মূল্যবান ৩৮ রান।

ব্যাট হাতে ৩৮ ও বল হাতে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন স্ট্রয়নিস।
এএইচ/ এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি