ঢাকা, বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

অস্ট্রেলিয়াকে মোকাবেলায় প্রস্তুত টাইগার বাহিনী

প্রকাশিত : ২৩:০৪ ১৯ জুন ২০১৯ | আপডেট: ২৩:০৯ ১৯ জুন ২০১৯

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে বিশ্বকাপে উড়ন্ত সূচনা হয়েছিলো বাংলাদেশের। তবে পরের ম্যাচগুলোতে কিছুটা হতাশই হতে হয় টাইগার ভক্তদের। এর সঙ্গে প্রকৃতিও এই হতাশাকে আরো বাড়িয়ে দেয়। যেখানে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখছিলো টাইগাররা, সেখানে টানা দুই হারের পর বৃষ্টিতে পরিত্যাক্ত হয় একটি ম্যাচ। এর পরে অনেক চ্যালেঞ্জ নিয়েই মাঠে নামতে হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে।

তবে সেই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে নিজেদের শক্তি জানান দিয়েছেন টাইগাররা। বড় জয় তুলে নিয়ে নিজেদের আত্মবিশ্বাস আরো চাঙ্গা করে নিয়েছেন। কাল সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলেই অস্ট্রেলিয়াকেও হারানো সম্ভব। যার মাধ্যমে সেমিফাইনালের স্বপ্ন আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে টাইগারদের। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয়ের বিষয়ে সাকিব বলেন,অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন তিনি। জানান, ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ম্যাচের ফর্মটা ট্রেন্টব্রিজে বয়ে নিতে পারলেই অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সম্ভব।

এবারের আসরের প্রথম ম্যাচে কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিডিদের সামলেছেন তামিম-সাকিবরা। দ্বিতীয় ম্যাচে লকি ফার্গুসনের ১৫০ কিমির গোলা সামলাতে হয়েছে। বল হাতে আগুন ঝুড়িয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট-জিমি নিশামের মতো বোলার। ইংল্যান্ডের মার্ক উড-জোফরা আর্চারদের খেলার অভিজ্ঞতাও হয়েছে টাইগারদের। গত ম্যাচে শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, ওশানে থমোসদের বলকেও সীমানা ছাড়া করেছে ব্যাটসম্যানরা। তাই ম্টিল স্টার্ক, প্যাট কামিন্সদের সামলানোটা আর এমন কি বড় বিষয়?

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার জানান, ক্রিকেটাররা দারুণ পরিশ্রম করছেন। নিজের সামর্থ্যের সবটুকু ঢেলে দিচ্ছেন এখন ভাগ্যের কিছুটা সহায়তা পেলে সেমিফাইনাল আর দূরের বিষয় থাকবে না।

এবারের আসরে ভাগ্য অবশ্য কিছুটা বিপক্ষে গেছে বাংলাদেশের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কয়েকটি ভুল না হলে ম্যাচটা বাংলাদেশ জিততেই পারতো, শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটা ভেসে না গেলে সেমটাতেও জয় পেত বাংলাদেশ। তেমনটা হলে পাঁচ ম্যাচে চার জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে তো বাংলাদেশই থাকে! টনটনে ক্যারিবীয় দূর্গ পতনের চিত্রটা অস্ট্রেলিয়া নিশ্চয় দেখেছে। ইতোমধ্যে হয়তো,সাকিব আল হাসানের দুর্বলতা নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। মিরাজ, মুস্তাফিজ, লিটনদের কাবু করতে কম্পিউটার নিয়ে বসে পড়েছেন দলটির টিম ম্যানেজমেন্ট।

বাংলাদেশও ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ জুটি ভাঙার দাওয়াই খুজে বের করতে হবে। স্টিভেন স্মিথ নামক পাথরটি সরাতে হবে। আর তামিমরা যদি স্টার্ক-কামিন্সদের গোলাগুলো সামলাতে পারেন এই ম্যাচেও জয় বাংলাদেশেরই হবে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে ২০ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। মাত্র ১টিতে জিতেছে টাইগাররা। বিশ্বকাপে দুই বারের মুখোমুখিতে বাংলাদেশ একটিতেও জয় পায়নি।

তবে এবার সাকিব, মুশফিক, তামিম, লিটন, সৌম্যদের ব্যাট এবং মাশরাফি, মুস্তাফিজ ও মিরাজরা বল হাতে পূর্বের ম্যাচের মত জ্বলে উঠলে অস্ট্রেলিয়াকে ধরাশায়ী করতে পারবে বাংলাদেশ।

এনএম//আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি