ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ১৩ ১৪২৭

আইসিসি আর কত অপেক্ষা করবে?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:০৯, ২০ আগস্ট ২০১৯

খেলায় কোন মানুষের মৃত্যু হোক অথবা গুরুতর কোন আঘাতপ্রাপ্ত হোক এটা কারও কাম্য নয়। তা যদি কোন প্রোটেকশন নিয়ে রোধ করা যায়, তবে সে পথে কেন হাঁটবে না কর্তৃপক্ষ? ক্রিকেটমোদীদের এরকম অনেক প্রশ্ন আইসিসির কাছে।

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ হলো আইসিসি। তারা যেমন দেখছে তেমনি দর্শকরাও দেখছে ক্রিকেট মাঠে বল লেগে বিভিন্ন সময়ে খেলোয়াড়রা আঘাতপ্রাপ্ত হচ্ছে মাথা বা ঘাড়ে। তিন-চারদিন আগে লর্ডসে স্টিভ স্মিথের আঘাত চোখের সামনে ঝলঝল করছে। এরপরও কি আইসিসি হেলমেটে নেকগার্ড বাধ্যতামূলক করার অপেক্ষা করবে?

এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড ঘোষণা দিয়েছে, তারা এক বছরের মধ্যেই হেলমেটে নেকগার্ড বাধ্যতামূলক করবে। কোন খেলোয়াড় এই হেলমেট ছাড়া খেলতে পারবে না।

লর্ডসে অ্যাসেজের দ্বিতীয় টেস্টে শনিবার চতুর্থ দিনে ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হওয়া জোফরা আর্চারের বাউন্সারে মাথায় আঘাত পান স্টিভ স্মিথ। বল গিয়ে লেগেছিল স্মিথের মাথার পিছন দিকে ঘাড়ের কাছে। এরপরই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন অজি এই ব্যাটসম্যান। যদিও ৪৬ মিনিট পর সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরে ব্যাটও করতে নামেন স্মিথ। কিন্তু রবিবার অসুস্থ বোধ করায় পঞ্চম দিনে আর মাঠে নামেননি তিনি।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া ক্রিকেটে ঘাড়ে বল লেগে মারা গিয়েছিলেন ফিল হিউজ। সেই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েই নেকগার্ড বাধ্যতামূলক করছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও নেকগার্ড চালু করার কথা ভাবছে। এসব ঘটনা দেখে আইসিসি এবার শিক্ষা নেয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি