Ekushey Television Ltd.

এবারের বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিকম্যান সামি

প্রকাশিত : ১৬:১৬ ২৪ জুন ২০১৯

চলতি ক্রিকেট বিশ্বকাপে চার ছক্কার মার ভুঁড়ি ভুঁড়ি। সেঞ্চুরিও হয়েছে বেশ কয়েকটি। বোলাররা উইকেটও পাচ্ছে কিন্তু হ্যাটট্রিক ছিল অধরা। বিশ্বকাপের ২৮তম ম্যাচে হ্যাটট্রিকের দেখা মিললো। ভারতের পেসার মোহাম্মদ সামি এবারের বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক পেলেন।

সাউদাম্পটনে ভারতের ২২৪ রানের বিপক্ষে খেলতে নেমে আফগানিস্তানের শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। হাতে উইকেট ছিল ৩টি। শেষ ওভারে বল করতে আসেন মোহাম্মদ সামি।  ৫০তম ওভারের প্রথম বলে মোহাম্মদ নবী বাউন্ডারি মারেন। এরপর ৫ বলে দরকার ১২ রান। দ্বিতীয় বলে কোন রান নয়। তৃতীয় বলে নবীকে লংঅনে হার্দিক পান্ডিয়ার ক্যাচ বানিয়ে ছাড়েন সামি।

এরপরের বলটি মাপা ইয়র্কারে বোল্ড করেন আফতাব আলমকে। সামির সামনে হ্যাটট্রিকের হাতছানি। ধোনির পরামর্শ মেনেই নতুন ব্যাটসম্যান মুজিব-উর রহমানকে ইয়র্কারে বোল্ড আউট করেন। তাতেই সামির ইতিহাস।

বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত ভারত ৫টি ম্যাচ খেলেছে। কিন্তু আগের  চারটি ম্যাচে সামিকে রিজার্ভ বেঞ্চেই বসিয়ে রেখেছিল ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। ভুবনেশ্বর কুমার চোটে পড়ার কারণে বিশ্বকাপে নামার সুযোগ পান সামি। আর খেলতে নেমে বিশ্বকাপের ইতিহাসে দশম হ্যাটট্রিক করলেন।

প্রথম ভারতীয় হিসেবে ১৯৮৭ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন অলরাউন্ডার চেতন শর্মা। আর ২০১৯ সালে  দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে হ্যাটট্রিকম্যান হলেন মোহাম্মদ সামি।  বিশ্বকাপের ইতিহাসে সব মিলিয়ে নবম বোলার ও দশম হ্যাটট্রিক এটি।

এবার দেখে নেই বিশ্বকাপের হ্যাটট্রিকসমূহ :

বিশ্বকাপের প্রথম হ্যাটট্রিক ১৯৮৭ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতীয় মিডিয়াম পেসার চেতন শর্মা করেছিলেন।

১৯৯৯ সালে লন্ডনের দ্য ওভালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছেন পাকিস্তানের অফ স্পিনার সাকলাইন মুশতাক।

২০০৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের পিটার্সমরিসবার্গে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম তিন বলে উইকেট নিয়ে বিরলতম হ্যাটট্রিক করেছিলেন লঙ্কান পেসার চামিন্দা ভাস।

একই বিশ্বকাপে অর্থাৎ ২০০৩ সালে কেনিয়ার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন অস্ট্রেলীয় পেসার ব্রেট লি।

২০০৭ সালে দ্বিতীয় শ্রীলঙ্কান হিসেবে হ্যাটট্রিক করেন লাসিথ মালিঙ্গা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে।

২০১১ সালে নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার কেমার রোচ। ক্যারিবীয় বোলারদের মধ্যে তিনি প্রথম ও এখন পর্যন্ত একমাত্র বোলার হিসেবে বিশ্বকাপে হ্যাটট্রিক করেন।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে দুটি হ্যাটট্রিকের মালিক মালিঙ্গা। অর্থাৎ ২০১১ সালে কেনিয়ার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক অর্জন করেন। এর আগেরটি ছিল ২০০৭ সালে।

২০১৫ বিশ্বকাপও দেখেছিল দুটি হ্যাটট্রিক। ইংল্যান্ডের স্টিভেন ফিন অস্ট্রেলিয়ার ব্রাড হাডিন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও মিচেল জনসনকে আউট করেন হ্যাটট্রিকের দেখা পান।

একই বিশ্বকাপে (২০১৫) দ্বিতীয় হ্যাটট্রিকটি করেন দক্ষিণ আফ্রিকার পার্টটাইম বোলার জেপি ডুমিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, নুয়ান কুলাসেকারা ও থারিন্দু কুশলকে আউট করেন তিনি। বিশ্বকাপে কোনো দক্ষিণ আফ্রিকানের এটিই এখন পর্যন্ত প্রথম হ্যাটট্রিক।

সর্বশেষ বর্তমান বিশ্বকাপে (২০১৯)  আফগানিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে হ্যাটট্রিকম্যান হলেন মোহাম্মদ সামি।

সূত্র : আইসিসি ক্রিকেট ডট কম।

এএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি