ঢাকা, বুধবার   ২৪ জুলাই ২০১৯, || শ্রাবণ ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

চোট নিয়ে মাঠ ছাড়লেন সাকিব

প্রকাশিত : ২৩:১৮ ১৫ মে ২০১৯

লিটন দাস আউট হওয়ার পর দলের হাল ধরেন সাকিব আর মুশফিক। এই দুজনের জুটি জমে গিয়েছিল। তবে ৩৩ বলে ৩৫ রান করা মুশফিক রেনকিনের শিকার হলে ৬৪ রানেই অবসান হয় জুটির। এর মাঝেই চোটে পড়েন সাকিব। মাঠেই কিছুক্ষণ শুশ্রুষা নিয়ে ব্যাটিং শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। এর আগে তার সংগ্রহ ৫১ বলে অপরাজিত ৫০ রান আর দলীয় সংগ্রহ ২৪৭ রান। এটি তার ক্যারিয়ারের ৪২তম হাফ সেঞ্চুরি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৪০ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৭৭ রান করেছে বাংলাদেশ।

এর আগে টাইগারদের হয়ে ব্যাটিংয়ে ওপেন করতে নামেন তামিম ইকবাল ও লিটন দাশ। যেখানে ক্যারিয়ারে ৪৬তম হাফসেঞ্চুরির দেখা পান তামিম। ৪৬ বলে ৮টি চারের সাহায্যে ফিফটি করেন তিনি। পরে ৫৩ বলে ৯টি চারে ৫৭ করে বয়েড র‌্যানকিনয়ের বলে বোল্ড হন। তিনি ওপেনিং জুটিতে লিটন দাশের সঙ্গে শতক করেন।

দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা লিটন ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ফিফটি করে ৭৬ রানে বিদায় নেন। দলীয় ১৬০ রানের মাথায় ব্যারি ম্যাকার্থির বলে বোল্ড হন তিনি। ৬৭ বলে ৯টি চার ও এক ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান তিনি।

বুধবার (মে ১৫) ডাবলিনের ক্যাসেল অ্যাভিনিউয়ে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করা বাংলাদেশ নিয়মরক্ষার ম্যাচে টসে হেরে প্রথমে ফিল্ডিংয়ে নামে। যেখানে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯২ রান সংগ্রহ করে আইরিশরা। দলের হয়ে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন ওপেনার পল স্টারলিং। এছাড়া তার সঙ্গে দারুণ জুটি গড়া উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন।

আবু জায়েদ রাহির বোলিং তাণ্ডবে তিনশ রানের আশা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত ২৯২ রানে থামতে হয় আয়ারল্যান্ডকে। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নেমেই ৫ উইকেটের দেখা পেলেন ডানহাতি এই ফাস্ট বোলার। ত্রিদেশীয় সিরিজে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড।

দলীয় চতুর্থ ওভারে আইরিশ ওপেনার জেমস ম্যাককলামকে লিটন দাশের ক্যাচে বিদায় করেন রুবেল হোসেন। নিউজিল্যান্ড সফরের পর এ ম্যাচে প্রথম ওয়ানডে খেলতে নামেন এই পেসার। পরে অভিষেক উইকেট তুলে নেন আবু জায়েদ রাহি। ত্রিদেশীয় সিরিজিই ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল তার। যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বেশ খরুচে বোলিং করে কোনো উইকেট পাননি তিনি। এ ম্যাচে আইরিশদের দলীয় ৫৯ রানে অ্যান্ড্রু বালবার্নিকে উইকেটের পেছনে থাকা লিটন দাশের ক্যাচে বিদায় করেন তিনি।

এরপরের গল্পটা অনেকটাই স্বাগতিকরা নিজেদের করে নেয়। বাংলাদেশের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরি তুলে নেন আয়ারল্যান্ড ওপেনার পল স্টারলিং। ১২৭ বলে তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছান এই ডানহাতি। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তিনি অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের সঙ্গে ১৭৪ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। ফলে বড় সংগ্রহের ভীত পায় দলটি স্বাগতিকরা। তবে ক্যাচ মিসের মহড়ায় স্টারলিং দু’বার ও পোর্টারফিল্ড একবার জীবন পান।

অবশেষে রাহি এই জুটিকে থামিয়ে দু’জনকেই আউট করেন। স্টারলিং ১৪১ বলে ৮টি চার ও ৪টি ছক্কায় ১৩০ করে তিনি লিটন দাশের ক্যাচে ফেরেন। আর ৬ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত পোর্টারফিল্ডকে সেই লিটনের ক্যাচেই ফেরান রাহি।

পরে কেভিন ও’ব্রাইন ও গ্যারি উইলসনকে বিদায় করে ক্যারিয়ারে মাত্র দ্বিতীয় ম্যাচেই ৫ উইকেটের স্বাদ নেন চমক নিয়ে আসছে বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়া রাহি। শেষ দিকে মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ২টি উইকেট তুলে নেন।

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি