ঢাকা, শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

তামিম-পেরেরা ঝড়ে বড় সংগ্রহ ঢাকার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:১৪ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ২১:৪২ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

তামিম ইন অ্যাকশন

তামিম ইন অ্যাকশন

শুরুতেই মুজিব ও রনির শিকার হয়ে বিজয় ও মেহেদি ফিরে গেলে বিপাকে পড়ে ঢাকা। তবে তামিম ইকবালের দায়িত্বশীল ফিফটি আর পেরেরার ঝড়ে এবারের বিপিএলের বড় সংগ্রহ গড়েছে ঢাকা প্লাটুন। নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ১৮০ রান। 

আজ শুক্রবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়ার্সের মুখোমুখি হয় ঢাকা প্লাটুন। প্রথম ম্যাচে রাজশাহীর কাছে হেরে ব্যাকফুটে থাকা মাশরাফি-তামিমরা আজ কুমিল্লার বিপক্ষে জয় নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চায়।

সে লক্ষ্যে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জোড়া ধাক্কা খায় ঢাকা প্লাটুন। ইনিংসের প্রথম বলেই শূন্য রানে ফেরেন এনামুল হক বিজয়। কিছুক্ষণ বাদে তিনে নামা মেহেদি হাসান আউট হলে ২৬ রানেই দ্বিতীয় উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে দলটি। 

সেই অবস্থা থেকে দায়িত্বশীল এক ইনিংস খেলে দলকে টেনে তোলেন তামিম ইকবাল। একইসঙ্গে দীর্ঘদিন পর রানে ফেরা তামিম তুলে নেন বিপিএলে নিজের ১৭তম ফিফটিও। ধীর-স্থিরে শুরু করা তামিম হাত খুলে খেলা শুরু করেন ত্রিশ পেরোনোর পরই। ৩০ বলে ২৯ করা তামিম ফিফটি তুলে নেন ৪০ বলে। 

সৌম্যকে ছক্কা হাঁকিয়ে পরের বলে সিঙ্গেল নিয়ে ফিফটি পূরণ করেন দেশ সেরা এই ওপেনার। পরে আরও ১২ বল খেলে ২৪ রান তুলে নিয়ে আউট হন তামিম। তার ৫৩ বলে ৭৪ রানের ইনিংসে ছিল চারটি ছক্কা আর ছয়টি চারের মার। 

তামিম ফিরলেও ঢাকার রানের চাকাকে দ্রুততার সঙ্গে ঘোরাতে থাকেন আরেক হার্ড হিটার থিসারা পেরেরা। রীতিমত ঝড় তোলের এই লঙ্কান। যার প্রকোপটা বেশি পড়ে স্বদেশী শানাকা এবং সৌম্য ও আবু হায়দার রনির ওপর। রনির এক ওভারে তো চারটি চার আর এক ছক্কায় ২২ রান তুলে নেন তিনি। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ১৭ বলে ৪৩ রান করে। যাতে ছিল সাতটি চার ও একটি ছক্কার মার।    

এর মাঝে মাঝারি মানের একটি ইনিংস খেলেন লরি ইভান্স। ২৪ বলে ২৩ রান আসে তার ব্যাট থেকে। তবে শেষ দিকে দ্রুত তিনটি উইকেট হারালে ১৮০ রানেই থামে ঢাকার ইনিংস। সৌম্য ও শানাকা নেন দুটি করে উইকেট। 

এর আগে এদিনও টস নামক ভাগ্য পরীক্ষায় হেরে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ পায় প্রতিপক্ষ কুমিল্লার কাছ থেকে। আগের ম্যাচেও টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে তামিম-আফ্রিদিরা। যদিও মাশরাফির ঝড়ে শেষ পর্যন্ত ১৩৪ রানের সংগ্রহ পেয়েছিল তারা। তবে তা জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। 

এদিকে, চলতি আসরের দ্বিতীয় ম্যাচে রংপুরের বিপক্ষে ১০৫ রানের বিশাল জয় দিয়ে এবারের বিপিএল মিশন শুরু করে কুমিল্লা। সেই ধারাবাহিতা ধরে রাখতে চায় দাসুন শানাকার দল। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুদলের মধ্যকার ম্যাচটি শুরু হয় রাত ৭টায়। 

এনএস/

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি