ঢাকা, রবিবার   ২৫ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ১১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

নাটকীয় ফাইনাল নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

প্রকাশিত : ১৩:০২ ১৫ জুলাই ২০১৯ | আপডেট: ১৫:৩০ ১৫ জুলাই ২০১৯

সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যত নাটকীয়তা দেখেছে ক্রিকেট দুনিয়া তা আগে কখনো হয়েছে বলে মনে হয় না।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকে বৃষ্টির হানা। যা চলতে থাকে আসরের সেমিফাইনাল পর্যন্ত। তবে বেঁচে গেছে ফাইনাল ম্যাচ। অন্যদিকে, আইসিসির কিছু নিয়ম এবং এই প্রথম বিশ্বকাপের কোনো সেমিফাইনাল ম্যাচ রিজার্ভ ডে তে গড়িয়েছে।

গোটা আসরজুড়ে নাটকীয়তার ষোলকলা পূর্ণ হয়েছে ফাইনালে। এমন ম্যাচ কখনো কেউ কল্পনাও করতে পারেনি।

একই ম্যাচে দু’দুবার টাই এটাই প্রথম। নিয়মের ব্যতিক্রম ঘটিয়ে টুর্নামেন্ট সেরা পুরস্কারও তুলে দেয়া হয়েছে রানার্সআপ দলের অধিনায়ককে।

লর্ডসে মাঠে বসে যারা খেলা দেখেছেন, তারা হয়তো এখনো ঘোরের মধ্যেই আছেন। ভাবছেন কিংবা নিজের শরীরের চিমটি কেটে শিউর হতে চাচ্ছেন, আসলে আগের রাতে যা দেখলাম তা সত্যিই তো!

নাটকীয়তার এ ম্যাচ শেষ হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। যে ম্যাচে জয়ের কিনারে এসেও ভাগ্যের কাছে আত্মসমর্পণ করতে হয় কিউইদের। আফসোস নিয়ে ভাল খেলা উপহার দেয়ার সান্তনা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

অপরদিকে, হারতে বসেও জয়ের মুখ দেখে ইংলিশরা। ফলে, শেষ হাসি নিয়ে নিজেদের ট্রফি খরা কাটালো তারা। তাই বাহবা পাওয়াটা তাদের প্রাপ্যও বটে।  

ফাইনাল ম্যাচের দুনিয়া কাঁপানো শেষের ৩০ মিনিটের সারসংক্ষেপ এই যে, বিশ্বকাপ জিততে শেষ বলে ২ রান চাই ইংল্যান্ডের। কিন্তু স্ট্রাইকে থাকা বেন স্টোকস মাত্র ১ রান নিতে পারায় ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। সেখানেই একের পর নাটকীয় ঘটনা।

আগে ব্যাট করে ১৫ রান করে ইংল্যান্ড। জবাবে নিউজিল্যান্ডও করে ১৫ রান। তবে স্বাগতিকদের তুলনায় ১ বাউন্ডারি কম মারার হিসেবে পড়ে বিশ্বকাপ হাতছাড়া করে ফেলে কিউইরা। অন্যদিকে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দে মাতে ইংলিশরা।

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায়গুলো ভরে যায় একের পর পোস্টে। সাধারণ ক্রিকেটপ্রেমিদের থেকে শুরু করে ক্রিকেটের তারকারাও নিজেদের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। চুপ থাকতে পারেননি নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশে।

টু্ইটারে শ্বাসরুদ্ধকর এ ম্যাচ নিয়ে সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক মাইকেল ভন লেখেন, আমি মনে করি বিশ্বকাপের শিরোপার এ লড়াইয়ে কেউই হারেনি। ক্রিকেটের জন্য কী দুর্দান্ত একটি দিন। আর এটাই নতুন প্রজন্মকে ক্রিকেটের প্রতি উৎসাহিত করবে।’

পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আক্তার বলেন, ওহ ইশ্বর! কি দারুণ এক ফাইনাল দেখলো ক্রিকেটবিশ্ব। দু’দলই শিরোপার দাবি রাখে। বাউন্ডারি অনুযায়ী একদল শিরোপা ঘরে তুলেছে। ভাল হতো যদি উভয়কেই শিরোপা ভাগ করে দেয়া হতো। 

এদিকে জনপ্রিয় ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া ম্যাচ শেষে জানান, জীবনের সেরা ওয়ান্ডে ম্যাচ দেখলাম। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটি সেরা ফাইনাল।

অন্যদিকে, বিখ্যাত ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে তার টুইটবার্তায় লেখেন, বিশ্বকাপের মতো আসরে এরকম শেষ বলে রানআউটের মত ঘটনা এটাই প্রথম। ভবিষ্যতে এর পুনরাবৃত্তি হবে বলে মনে হয়না। সত্যিই অসাধারণ একটা ম্যাচ। 

ম্যাচ শেষে বিশ্বকাপ জয়ী ইংলিশ ওপেনার জেসন রয় বলেন, আমরা অসাধারণ একটা খেলা উপহার দিয়েছি। এটাই ক্রিকেট।

আর দু’দুবার ফাইনাল খেলেও শিরোপা ঘরে তুলতে না পারায় বিমূর্ষ কিউই অললাউন্ডার জিমি নিশাম লেখেন, ‘অনেক কষ্ট দিলো। আমার মনে হয় না আগামী কয়েক দশকেও আমি এই ম্যাচের শেষভাগ ভুলতে পারবো না।’

তবে শ্বাসরুদ্ধকর এ ম্যাচে স্বাগতিকরা শিরোপা জিতলেও, নিউজিল্যান্ডের হতাশার কিছু দেখছেন না ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। কেননা, তারা মাঠের লড়াইয়ে হারেনি। হেরেছে আইসিসির নিয়মের কাছে।

তাই অনেকেই আইসিসির নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। বলেছেন, বিশ্বকাপের ফাইনালের মতো ম্যাচে এ ধরনের নিয়ম কখনো থাকা উচিত নয়। মাঠের খেলাই এখানে মূখ্য বিষয় বলে উল্লেখ করেন অনেকে।

আই/

 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি