ঢাকা, শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

পিএইচডি করছেন মুশফিক!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:০০ ১৭ জুলাই ২০১৯

যে কোন বিষয়ে সাফল্য অর্জন করতে বা কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে পৌঁছাতে যেমন প্রয়োজন নিরলস সাধনা, তেমনি খেলাধুলার ক্ষেত্রেও সাফল্য পেতে এর বিকল্প নেই। আর একজন ক্রিকেটারের ক্ষেত্রে তো সাধনা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ছোটবেলা থেকেই তার ধ্যানজ্ঞান জুড়ে থাকে শুধু ক্রিকেট। এ নিয়েই সময় কাটে তার। কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে তার সব ব্যস্ততা থাকে ক্রিকেটকে ঘিরেই। ফলে পড়াশোনার সময় বের করতে পারেন না তিনি। এক কথায় দুরূহ কঠিনই বটে।

তবে এর মাঝে কিছু ব্যতিক্রমও আছে। বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে এরকম হাতেগোনা কয়েকজন আলোচিত ক্রিকেটার আছেন, যারা তাদের মাঠের পারফরম্যান্সেও দুর্দান্ত, আবার পড়াশোনাতেও তুখোড়। তেমনই একজন হলেন মি. ডিপেন্ডেবল খ্যাত টাইগার উইকেটকীপার-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্ভরতার প্রতীক তিনি। ব্যাট হাতে নিয়মিত রান করায় 'রান মেশিন'ও বলা হয় তাকে। সময়ের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান জিপিএ-৫ নিয়ে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। পরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর দুটিতেই প্রথম শ্রেণি পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন। 

তবে এখানেই থেমে থাকেননি ২৯ বছর বয়সী ছোটখাটো গড়নের এ ক্রিকেটার। ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের পথে হাঁটছেন তিনি। করছেন পিএইচডি, জাবিতেই। তাও সেই ক্রিকেট নিয়েই। হ্যাঁ পাঠক, টাইগারদের সর্বোচ্চ শিক্ষিত এ ক্রিকেটারের পিএইচডির বিষয় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ক্রিকেট।

এদিকে বিশ্বকাপ মিশন শেষে কদিন আগে দেশে ফিরেছেন মুশফিক। সপ্তাহ না যেতেই নেমে পড়েছেন অনুশীলনে। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ইনডোরে করছেন নিবিড় অনুশীলন। এর মাঝেই সময় বের করে নিয়ে যাচ্ছেন নিজের গবেষণা প্রতিষ্ঠানে। শ্রীলংকা সফরের আগেই তাড়না আছে গবেষণার পরীক্ষায় বসার। তাই ক্রিকেটের পাশাপাশি মনোযোগ দিয়েছেন এমফিলের পড়াশোনায়।

মাঠের খেলা, সংসার, একমাত্র ছেলে শাহরোজ মায়ানের সঙ্গে খেলাধুলা, তদুপরি লেখাপড়া- সব মিলিয়ে সবকিছু সামলানো কঠিনই বটে। তবুও পিছপা নন মুশফিক। শত ব্যস্ততার মাঝেই আত্মতৃপ্তি খুঁজছেন তিনি। চাঙ্গা রাখছেন মনোবল। হয়তো সে কারণেই চার বছর বিরতির পর আবারও পড়াশোনায় ঝুঁকতে পেরেছেন তিনি। তাইতো খেলার পাশাপাশি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ক্রিকেট নিয়ে গবেষণাই আপাতত তার ধ্যানজ্ঞান।

এনএস/আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি