ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বিমানবন্দরে হেনস্থার শিকার ওয়াসিম আকরাম!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৩৯ ২৪ জুলাই ২০১৯

বাইশ গজের সুলতান অফ সুইং নামে খ্যাত তিনি। বিশ্বজোড়া নাম তার। অথচ সেই ওয়াসিম আকরামকেই কি না চূড়ান্ত হেনস্তার মুখে পড়তে হলো! ইনসুলিন কাণ্ডে চরম হেনস্থার শিকার হলেন পাক ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক। 

ঘটনাটি ঘটেছে ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার বিমানবন্দরে। বিশ্বকাপে ধারাভাষ্য দিতেই ব্রিটেনে ছিলেন ওয়াসিম আকরাম। দীর্ঘদিন ধরেই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ওয়াসিম আকরাম। সবসময় ইনসুনিল সঙ্গে রাখতে হয়। আর সেখানেই বিপত্তি। 
প্রাক্তন পাক তারকার অভিযোগ, বিমানবন্দরে তার সঙ্গে খুব খারাপ ব্যবহার করেছেন কর্মীরা। রীতিমতো অভব্য আচরণ করে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়।

ওয়াসিম আকরাম সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই গোটা ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন। টুইটারে তিনি লেখেন, আজ ম্যানচেস্টার বিমানবন্দরে যা হলো, তাতে আমি অত্যন্ত দুঃখিত। আমি ইনসুলিন সঙ্গে করেই বিশ্বের নানা জায়গায় ঘুরে বেড়াই। কিন্তু কখনও তার জন্য এতটা লজ্জিত হতে হয়নি। আমায় চূড়ান্ত অপমান করা হয়েছে। অভদ্রভাবে প্রশ্ন করা হয়েছে। আর অন্যান্য যাত্রীদের সামনেই ট্রাভেল কেস থেকে ইনসুলিন বের করে তা প্লাস্টিক ব্যাগে ফেলে দিতে বলা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের এমন আচরণে অত্যন্ত হতাশ ও ক্ষুব্ধ ওয়াসিম আকরাম।

এদিকে, আকরামের টুইটটি নজরে পড়ে ম্যানচেস্টার বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের। বিমানবন্দরের অফিসিয়াল হ্যান্ডল থেকে আকরামের উদ্দেশে লেখা হয়, বিষয়টি তাদের নজরে আনার জন্য ধন্যবাদ। সেই সঙ্গে আকরামকে জিজ্ঞাস করা হয়, বিষয়টি তিনি সরাসরি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে জানাতে পারবেন কি না?

আকরামও দেরি না করে উত্তর দিয়েছেন। ম্যানচেস্টার বিমানবন্দরে সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ রাখবেন বলে জানিয়ে দেন।
পরে আকরাম জানান, তিনি বাড়তি কোনও সুবিধা চান না। কিন্তু আশা করেন বিমানবন্দর আধিকারিকরা সবার ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট আচরণ বিধি মেনে কাজ করবেন।

এবার দেখা যাক, আকরামের সঙ্গে অভব্য আচরণ করায় বিমানবন্দর কর্মীদের শাস্তির মুখে পড়তে হয় কি না।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি