ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯, || আশ্বিন ৩০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বকাপে বাড়ছে আফগান ভীতি

প্রকাশিত : ২৩:৫১ ২৪ মে ২০১৯

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেটের দুর্দান্ত জয় পেয়েছে আফগানিস্তান। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলটি পাত্তাই পায়নি আফগানদের সামনে। এই জয়ে বিশ্বকাপে চমক দেখানোর রসদ পেলো আফগানরা। পাশাপাশি বেড়ে গেল আসন্ন বিশ্বকাপে আফগান ভীতি।

শুক্রবার ইংল্যান্ডের ব্রিস্টলের কাউন্টি গ্রাউন্ডে প্রথমে ব্যাট করে বাবর আজমের সেঞ্চুরির পরও ৪৭.৫ ওভারে ২৬২ রানে অলআউট পাকিস্তান। টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৩ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় আফগানিস্তান। দলের জয়ে ৭৪ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন হাসমতউল্লাহ শহীদি।

আফগানদের এ জয়ে বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের দুর্বলতা ফুটে উঠেছে। পাশাপাশি বেড়েছে আফগানদের শক্তি ও নৈপূণ্য। এসব কারণে ক্রিকেট বোদ্ধারা বলছেন বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আফগান ভীতিটা বেড়ে গেল।

এছাড়া আফগানদের শক্তিশালী হওয়া পেছনে রয়েছে হামিদ হাসান। ২০১৬ সালে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন হামিদ হাসান। ৩২ বছর বয়েসী এই পেসারকে তিন বছর পর একেবারে বিশ্বকাপ দলে ফিরিয়েছে আফগানিস্তান।

আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে বড় স্বপ্ন দেখছে আফগানিস্তান। এই বিশ্ব আসরে ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে চান আফগানরা। ইতিমধ্যে ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করেছে তাদের ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)।

দল ঘোষণার পর প্রধান নির্বাচক দৌলত আহমেদজাই জানিয়েছেন, বিশ্বকাপে লড়াকু মানসিকতা প্রদর্শন করতে চান তারা। তিনি বলেন, বিশ্বকাপের জন্য ছয় মাস প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এ টুর্নামেন্টে আমাদের লক্ষ্য- অনুপ্রেরণাদায়ী ক্রিকেট খেলা। আমরা জানি, এখানে অনেক কঠিন প্রতিপক্ষ আছে। তবে লক্ষ্য পূরণে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।

আগামী ১ জুন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযানে নামবে আফগানিস্তান। তাতে বড় দল থাকলেও লক্ষ্য অর্জনে নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেবেন আফগানরা।

প্রধান নির্বাচক বলেন, এই টুর্নামেন্ট আমাদের অনুপ্রেরণামূলক ক্রিকেট খেলার মিশন। আমি জানি, এখানে অনেক শক্তিশালী দল রয়েছে। কিন্তু আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সেরাটা দেব।

বিশ্বকাপের জন্য সেরা দলটাই নির্বাচন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দৌলত আহমেদজাই। অভিজ্ঞতা, ফিটনেস, কম্বিনেশন ও কন্ডিশন বিবেচনা করে সেরা ক্রিকেটারদেরই বেছে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধান নির্বাচক হিসেবে আমার দায়িত্ব ছিল প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক দল গড়া। সেই পথে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ ছিল। সেগুলো আমাদের উতরাতে হয়েছে। অভিজ্ঞতা, ফিটনেস, সমন্বয় ও কন্ডিশন বিবেচনা করে আমরা সেরা দলটাই নির্বাচন করেছি।

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি