ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বোর্ড সভাপতির পাশে দাঁড়িয়ে যা বললেন সাকিব

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:১৪ ২ নভেম্বর ২০১৯

পাপন ও সাকিব

পাপন ও সাকিব

সম্প্রতি আইসিসির দেয়া এক বছরের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ দলের ভারত সফরে যাওয়ার ঠিক আগ মুহুর্তেই ওই নিষেধাজ্ঞা পান সাকিব। সেদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে অল্প কিছু কথা বলেছিলেন বিষণ্ণ সাকিব আল হাসান। 

এরপর বেশ কয়েকদিন সাকিবের নিষেধাজ্ঞা, ভারত সফর ও বিসিবি সভাপতি পাপনকে দেশে-বিদেশে বয়ে যায় আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। অনেকে তো সাকিবের শাস্তির জন্য বিসিবি বসকেই দায়ী করে বসেন। এরইমধ্যে তার একটি ভিডিওকে নিয়ে শুরু হয় ব্যাপক ট্রল। যা নিয়ে রীতিমত তোলপাড় পড়ে যায়। 

তবে গোটা এ সময়টাই নিশ্চুপ ছিলেন নিষেধাজ্ঞার আগপর্যন্ত জাতীয় দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের দায়িত্বে থাকা টাইগার তারকা সাকিব। অবশেষে মুখ খুললেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার।

শুক্রবার দিবাগত (২ নভেম্বর) রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড অফিসিয়াল পেজে একটি বার্তা প্রদান করেন সাকিব। সেখানে তিনি সমর্থকদের শান্ত ও ধৈর্যশীল থাকতে বলার সঙ্গে সঙ্গে সবাইকে সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞতাও জানান। 

এছাড়াও সাকিব কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবিকে। সেইসঙ্গে দোয়া চেয়েছেন সবার কাছে- যাতে আবারও খেলতে পারেন দেশের হয়ে। সাকিবের সেই স্ট্যাটাসটি একুশে টিভি অনালাইনের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘শুরুতেই বলতে চাই, এই খারাপ সময়ে সকল ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষী যে নিঃস্বার্থ সমর্থন, ভালোবাসা নিয়ে আমার এবং আমার পরিবারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন তাতে আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। শেষ কয়েকদিনে দেশের হয়ে মাঠে নামার গুরুত্ব আমি আরও ভালোভাবে অনুধাবন করতে পেরেছি৷

সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমার ওপর শাস্তি আরোপিত হওয়ায় ক্ষুব্ধ সকল ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের ধৈর্য ধরে শান্ত থাকার অনুরোধ করছি। আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আইসিসি আকসুর পুরো তদন্তটাই ছিলো অত্যন্ত গোপনীয় এবং আমার উপর শাস্তি আরোপিত হওয়ার মাত্র কয়েক দিন আগে বিসিবিকে আমি এ ব্যাপারে জানাই। দেরিতে জানলেও এমন পরিস্থিতিতে বিসিবিই আমাকে সবচেয়ে বেশি সমর্থন দিয়েছে। তাই, বোর্ডের প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

সাকিব আরও বলেন, ‘যারা এই কঠিন সময়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এসেছেন, সবাইকে ধন্যবাদ। মনে রাখতে হবে, পুরো ব্যাপারটিই একটি সুনির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই সম্পন্ন হচ্ছে। যেহেতু ওই সময়ে আমি আমার দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করতে পারিনি তাই আমিও আমার ওপর আরোপিত শাস্তি মাথা পেতে নিয়েছি।’

বর্তমান লক্ষ্যের বিষয়ে সাকিব বলেন, ‘২০২০ সালে বাংলাদেশের হয়ে আবার মাঠে নামার কথা ছাড়া এই মুহূর্তে আর কিছুই ভাবছিনা আমি। ততদিন পর্যন্ত আপনাদের দোয়া আর প্রার্থনায় আমাকে রাখবেন বলেই আশা করছি। ধন্যবাদ।’

এদিকে, সাকিব ইস্যু ও একটি ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিয়মিত ট্রলের শিকার হচ্ছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তাতে ক্যাসিনো খেলে বিতর্কিত হন তিনি। একইসঙ্গে নেটিজেনদের দাবি, সাকিবের শাস্তির পেছনে হাত রয়েছে বোর্ড সভাপতির। তাই ভক্তদের এই বিভ্রান্তি দূর করতে স্ট্যাটাস দিলেন সাকিব! এ যেন সাকিবের পক্ষ থেকে বোর্ড সভাপতির পাশে দাঁড়ানো!

এনএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি