ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ভারতে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের হাতছানি টাইগারদের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:১১ ২৩ জুলাই ২০১৯ | আপডেট: ২২:১২ ২৩ জুলাই ২০১৯

ভারতে নাজমুল হোসেন শান্ত ও নুরুল হাসান সোহানের ফিফটিতে প্রথম ইনিংসে বড় লিড পায় বিসিবি একাদশ। দ্বিতীয় দিন শেষে কেএসসিএ সেক্রেটারি একাদশের প্রথম তিন ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দিয়েছে মুমিনুল হকের দল। ফলে টাইগার সামনে এখন ইনিংস ব্যবধানে জেতার হাতছানি।

দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে সেক্রেটারি একাদশের স্কোর ৩ উইকেটে ১০০। ইনিংস পরাজয় এড়াতে এখনও ১৫৫ রান প্রয়োজন তাদের। অভিনব মনোহর ৩৭ রানে ব্যাট করছেন।
 
এর আগে অর্জুনকে বোল্ড করে দশম ওভারে ৪৪ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন ইবাদত হোসেন। পরের ওভারে বিদায় করেন শিভম মিশ্রকে। প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেওয়া শহিদুল ইসলাম থামান ৮ চারে ৩৭ রান করা অধিনায়ক রোহান কাদামকে। 
 
তবে দিনের বাকি সময়টা কোনো ক্ষতি ছাড়াই কাটিয়ে দেন অভিনব ও নাগা ভারত। 
 
এর আগে মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ৩ উইকেটে ১৩৫ রান নিয়ে শুরু করা বিসিবি একাদশ দ্রুত হারায় জহুরুল ইসলামকে (২৮)। এরপর থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি ইয়াসির আলি রাব্বি (১৬)। খানিক বাদেই রান আউট হয়ে ফেরেন রাব্বির সঙ্গে ৫১ রান জুটি গড়া শান্ত। ফেরার আগে ১২৫ বলে ১১ চারে ৭২ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলেন বাঁহাতি এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। 
 
এরপর আরিফুল হকও দ্রুত বিদায় নিলে ম্যাচে নিজেদের সেরা জুটি পায় বিসিবি একাদশ। সোহানকে দারুণ সঙ্গ দেন সানজামুল ইসলাম। দলকে নিয়ে যান তিনশ রানের কাছে। ৮৭ বলে ১৩ চার ও এক ছক্কায় ৬৮ রান করে সোহানের বিদায়ে ভাঙে তাদের ৭৭ রানের জুটি। 
 
পরে ৩৩ রান করে ফেরেন সানজামুল। আর শহিদুল শেষের দিকে বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে দুটি করে ছক্কা ও চারে ২৪ রান করলে বিসিবি একাদশ থামে ৩৩৪ রানে। প্রথম ইনিংসে কেএসসিএ সেক্রেটারি একাদশকে ৭৯ রানে থামানো মুমিনুলরা নেয় ২৫৫ রানের লিড। 

কেএসসিএ সেক্রেটারি একাদশের হয়ে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট নেন আনন্দ। এছাড়া দেবাইয়া দুটি এবং বিদওয়াথ ১টি উইকেট লাভ করেন। 

এনএস/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি