ঢাকা, শনিবার   ১৬ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

যে কারণে শেষ ওভার করলেন মাহমুদউল্লাহ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:২১ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এশিয়া কাপেই সুপার ফোরের ম্যাচে আফগানদের বিপক্ষে শেষ ওভারের রোমাঞ্চে জয় পেয়েছিল টাইগাররা। ৬ বলে আফগানদের প্রয়োজন ছিল ৮ রান। মুস্তাফিজুর রহমানের করা শেষ ওভারে আফগানরা নিতে পেরেছিল ৪ রান। সেইসঙ্গে হারিয়েছিল ১ উইকেট। ফলে বাংলাদেশ পেয়েছিল ৩ রানের রোমাঞ্চকর এক জয়।

শুক্রবার রাতে ফাইনালেও খেলা গড়ায় শেষ ওভারে। এদিন ভারতের প্রয়োজন ছিল ৬ বলে ৬ রান। আর শেষ ওভারে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হাতে বল তুলে দিয়েছিলেন অধিনায়ক। কারণ ৪৯তম ওভারটি মুস্তাফিজুর রহমান করায় তার ১০ ওভারের কোটা শেষ হয়। আর ১০ ওভারের কোটা শেষ হয়ে গিয়েছিল মাশরাফি, রুবেল হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপুরও। তাই এবার আর ভাগ্য পাশে ছিল না বাংলাদেশের।

শেষ পর্যন্ত ৩ উইকেটের জয় তুলে নেয় ভারত। আরও একটি ফাইনাল দুঃখগাথা হয়ে রইল বাংলাদেশের জন্য।

৫০তম ওভারটি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে দিয়ে করানোর ব্যাখ্যা দিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে মাশরাফি বলেন, ভারত যেভাবে রান করছিল, তাতে মুস্তাফিজকে ৪৯তম ওভারে বোলিংয়ে আনা ছাড়া উপায় ছিল না। কারণ রান আটকানোটা তখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

এদিন শেষ ২ ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১১ রানের। ১ ওভারেই খেলা শেষ হয়ে যেতে পারে। তাই মাশরাফি ৪৯তম ওভারটা করতেই বল তুলে দিয়েছিলেন মুস্তাফিজের হাতে। কাটার মাস্টার নিরাশ করেননি। ৩ রান দিয়ে উইকেটও নিয়েছেন ১টি। তাতে শেষ ওভার পর্যন্ত খেলাটা বেঁচে থাকল। আর সেই খেলা গড়ায় শেষ বল পর্যন্তও। তবে মাশরাফি-রুবেল-অপুর ১০ ওভারের কোটা শেষ হলেও বাকি ছিল মিরাজের ওভার। কিন্তু শুরুতে বল করা মিরাজ ৪ ওভারেই দেন ২৭ রান। তাই শেষ ওভারে মিরাজকে আনতে সাহস পাননি নড়াইল এক্সপ্রেস।

আসলে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের একাধিক ম্যাচেই শেষ ওভারে বীরত্ব দেখিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। তাই সেই কথা মাথায় রেখেই সৌম্য সরকারকে আনার কথা ভেবেও মাহমুদউল্লাহর হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক। ওই সময় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে মাশরাফি বলেন, রিয়াদকে বলছিলাম, ওরা মারতে যাবে। আর মারতে গেলে মিস হিট হতে পারে। বিশেষ করে কুলদীপ মারার চেষ্টা করবে। যাদব যেহেতু ব্যাটসম্যান, ও হয়তো তা করবে না। পঞ্চম বলটাই কিন্তু কুলদীপের ব্যাটে ইনসাইড এজ হয়েছিল। আসলে এ রকম পরিস্থিতিতে একটু ভাগ্যেরও সহায়তার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন মাশরাফি।

মাশরাফির মতে, ভালো ফাইট করেছে রিয়াদ। খেলা গড়িয়েছিল শেষ বল পর্যন্ত। লেগ বাইয়ের বদৌলতে রান পেয়ে যায় ভারত। ওই বলটা হয় ডট হতে হতো অথবা আউট। ও ইয়র্কারই করেছিল। কিন্তু বলটা প্যাডে পড়ে গেল। শেষ বলে রান না হলে ম্যাচ গড়াত সুপার ওভারে। আসলে ভাগ্য সহায় ছিল না।

একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি