ঢাকা, বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

‘সফরে স্ত্রী সঙ্গে থাকলে ভাল পারফর্ম করে খেলোয়াড়রা’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:২৩ ৪ অক্টোবর ২০১৯ | আপডেট: ১২:৪৬ ৪ অক্টোবর ২০১৯

বিদেশ সফরে ক্রিকেটারদের পরিবার বা বান্ধবীকে সঙ্গে থাকার অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্তকে একহাত নিলেন টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে একটি অনুষ্ঠানে আনুশকা শর্মা ও বিরাট কোহলিকে নিয়েও কথা বলেন সানিয়া।

অনুষ্ঠানে টেনিস তারকা বলেন, অনেক দলের ক্ষেত্রেই দেখি, যার মধ্যে ক্রিকেট দলও রয়েছে, যে স্ত্রী বা বান্ধবীকে সফরে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি নেই। তাতে দলের ছেলেদের মনঃসংযোগ নষ্ট হবে। এর অর্থ কী? মেয়েরা এমন কী করে যে, ছেলেদের মনঃসংযোগে ব্যঘাত ঘটবে? আসলে এই ধারণাটা একটা গভীর সমস্যা থেকে উঠে এসেছে। যেখানে বলা হয়, নারীরা মন বিক্ষিপ্ত করে দেয়, সে কখনও শক্তি হয়ে উঠতে পারে না।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের হারের জন্য তাকে দায়ী করা নিয়ে প্রশ্ন করলে সানিয়া বলেন, আমি তো ওদেশের মেয়েও নয়, আমার আর কী ক্ষমতা থাকতে পারে। এই প্রসঙ্গেই সানিয়া বিরাট-আনুশকাকে নিয়ে বলেন, ‘বিরাট যদি শূন্য রান করে, তাহলে আনুশকা শর্মাকে দায়ী করা হয়। বিরাটের শূন্য করার সঙ্গে আনুশকার কী সম্পর্ক? এর কোনও অর্থ হয় না।

দলগত খেলায় পুরুষরা সফর চলাকালীন স্ত্রী, বান্ধবী, পরিবার সঙ্গে থাকলে আরও ভাল পারফর্ম করতে পারে বলে দাবি সানিয়ার। বলেন, এর কারণ নিজের ঘরে আসার পরে তারা আরও খুশি হয়ে ওঠে। ওদের আর শূন্য ঘরে ফিরে আসতে হয় না তখন। একসঙ্গে নৈশভোজেও যেতে পারে। স্ত্রী বা সঙ্গিনী সঙ্গে থাকলে সেটা সেই খেলোয়াড়কে আরও সমর্থন, ভালবাসা দেয়।

দক্ষিণ এশিয়ায় জাতিসংঘের শুভেচ্ছাদূত সানিয়া একই সঙ্গে মেয়েদের খেলাধুলায় আসার জন্য আরও উৎসাহ দেওয়ার কথাও বলেন। তার মন্তব্য, তিনি যখন টেনিস খেলা শুরু করেন তখন মেয়েদের মধ্যে আদর্শ হিসেবে একজনই ছিলেন। তিনি পি টি ঊষা। এখন পি ভি সিন্ধু, সাইনা নেহওয়াল, জিমন্যাস্ট তারকা দীপা কর্মকারদের মতো প্রেরণা রয়েছেন।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি