ঢাকা, শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২

ঠাকুরগাঁওয়ে ফাঁস দিয়ে ও বজ্রপাতে মৃত ২

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:৪৮, ২৫ জুন ২০২০

ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈলে গলায় ফাঁস দিয়ে এবং বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) উপজেলার আরাজী চন্দনচহট (মালীবস্তি) গ্রামে মজিবর রহমান (৪৮) নামে এক ব্যক্তি নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। অন্যদিকে, ধর্মগড় ইউনিয়নে বিলে মাছ ধরতে গিয়ে শান্ত রায় (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ছয়মাস আগে মজিবরের স্ত্রী সাপের ছোবলে মারা যায়। এ কারণে তিনি মানসিক ভাবে অসুস্থ্ হয়ে পড়েন। বুধবার বিকেলে মজিবর তার একমাত্র ছেলেকে শশুড়বাড়ি থেকে বউমাকে আনতে পাঠান। ওইদিন রাতে বাড়িতে একা থাকা মজিবর নিজ শয়নকক্ষে আড়ার সাথে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস দেন। পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে দরজা ভেঙ্গে পরিবারের লোক তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত  লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় এলাকায় শোঁকের ছায়া নেমে আসে।

রাণীশংকৈল থানার সাব ইন্সপেক্টর আহসান হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানা যায়, তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। তিনি আরো বলেন, তার পরিবারের লোকজন লাশের ময়না তদন্ত না করার জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর আবেদন করেছেন।

এদিকে, উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নে বিলে মাছ ধরতে গিয়ে শান্ত রায় (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সে ধর্মগড় রাজাদীঘি গ্রামের টংকনাথ রায়ের ছেলে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে শান্ত রায় বৃষ্টির মধ্যে মাছ ধরার জন্য বাড়ির পাশে রাজাদীঘি শ্যামল বিলপাড় এলাকায় যায়। এসময় বজ্রপাত হলে সে ঘটনাস্থলে মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। রাণীশংকৈল থানার সাব ইন্সপেক্টর আহসান হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি