ঢাকা, বুধবার   ২১ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৮ ১৪২৮

স্থানীয় সিন্ডিকেটের দৌরাত্মে কমেছে চামড়ার দাম : বিটিএ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৩২, ২৫ আগস্ট ২০১৮ | আপডেট: ১৪:৪৬, ২৫ আগস্ট ২০১৮

কোরবানি পশুর চামড়ার দাম গত বছরের তুলনায় কম হওয়ার জন্য দায়ী স্থানীয় সিন্ডিকেট। স্থানীয় পাইকার এবং খুচরা ব্যবসায়ীরা নিজেদের মধ্যে যোগসাজশ করে চামড়ার দাম কম দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ট্যানারি মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ)’র চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ।

শনিবার সকালে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ) এর ধানমন্ডি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শাহীন আহমেদ বলেন, গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রতি বর্গফুট খাসির চামড়ার দাম ৭ টাকা কম। সেখানে আড়ৎদার বা খুচরা ব্যবসায়ীরা কিভাবে বেশি দাম দেবে? সরকার নির্ধারিত দামে আড়তদার ও ডিলারদের কাছ থেকে এ বছর এক কোটির ওপরে গরু, ছাগল, ভেড়া ও মহিষের চামড়া সংগ্রহ করা হবে।

খুচরা ব্যবসায়ী এবং চামড়ার আড়ৎদারদের আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, আপনারা কাঁচা চামড়া লবন দিয়ে সংরক্ষণ করেন। ট্যানারির প্রতিনিধিরা তিন থেকে চার দিনের মধ্যে আড়ৎদারদের কাছে যেয়ে চামড়া নিয়ে আসবে।লবন দিয়ে ভালোভাবে সংরক্ষণ না করলে সেই চামড়া নেওয়া যাবে না।

এবার কোনো কোনো এলাকায় ছাগলের চামড়া ১০ টাকায়ও বিক্রি হয়েছে। এটি কীভাবে সম্ভব? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে শাহীন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ থেকে চামড়া রফতানির সুযোগ আগে থেকে কমে গেছে। আর গত বছরের চামড়া এখনো রয়ে গেছে। সেজন্য ব্যবসায়ীদের এবার চামড়া কেনার আগ্রহ কম। আর চাহিদা কম থাকায় দামও কম। এছাড়া চীন বাংলাদেশের চামড়ার প্রধান রফতানি বাজার। কিন্তু সেখানে চাহিদা কমে যাওয়ায় রফতানি মার্কেটেও মন্দা দেখা দিয়েছে।

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি