ঢাকা, সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২

জয়ের নেশায় মত্ত কার্লোস আলাকারাজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:১২, ৯ মে ২০২২

একের পর এক শীর্ষ খেলোয়াড়দের হারিয়ে নিজেকে যেন আলাদাভাবে পরিচয় করিয়ে দেবার নেশায় মত্ত হয়ে উঠেছেন টেনিস তারকা কার্লোস আলাকারাজ। 

রোববার মাদ্রিদ ওপেনে স্পেনের ১৯ বছর বয়সী এ তরুণের শিকারে পরিনত হয়েছেন জার্মান তারকা আলেক্সান্দার জেভরেভ। ফাইনালে মাত্র ৬২ মিনিটের লড়াইয়ে আলকারাজ ৬-৩, ৬-২ গেমের সরাসরি সেটে জেভরেভকে পরাজিত করে শিরোপা জয় করেছেন। এনিয়ে টানা ১০ ম্যাচে জয়ের ধারা ধরে রাখলেন তরুণ এই স্প্যানিয়ার্ড।

এর আগে ফাইনালের পথে তিনি একে একে হারিয়েছেন রাফায়েল নাদাল ও বিশ্বের নাম্বার ওয়ান খেলোয়াড় নোভাক জকোভিচকে। নাদালের বিপক্ষে দুই ঘন্টা ২৮ মিনিট ও জকোভিচের বিপক্ষে ৩ ঘন্টা ৩৬ মিনিটের লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন আলকারাজ।

ক্লে কোর্টের প্রথম এই শিরোপা জয়ে আলকারাজ বিশ্ব র‌্যাংঙ্কিংয়ের ৬ নম্বর স্থানে উঠে এসেছেন। অথচ গত বছর এই টুর্ণামেন্টের আগে তার র‌্যাঙ্কিং ছিল ১২০তম।

রোববার ম্যাচ শেষে দারুন আত্মবিশ্বাসী আলকারাজ বলেছেন, “এই টুর্ণামেন্টটা আমার কাছে বিশেষ কিছু। কারন সাত/আট বছর বয়সে আমি এখানে আসতাম খেলা দেখতে।”

জার্মান দ্বিতীয় বাছাই জেভরেভও আলকারাজের প্রশংসা করতে ভুল করেননি। তিনি বলেন, “এই মুহূর্তে আলকারাজই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। এমনকি আমার থেকে পাঁচ বছরের ছোট হলেও সে আমাদের সবাইকেই পরাজিত করেছে।”

জেভরেভ টানা নয়টি ম্যাচে জয়ী হয়ে মাদ্রিদে খেলতে এসেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তরুণ আলকারাজের কাছে তিনি থামতে বাধ্য হলেন। প্রথম সেটে ষষ্ঠ গেমেই ব্রেক পয়েন্ট তুলে নিয়ে সহজেই এগিয়ে যান আলকারাজ। দ্বিতীয় সেটের প্রথম গেমে জয়ী হলেও পরের পাঁচ গেমেই হেরে বসেন জেভরেভ। পরের গেমে আলকারাজ ৪০-০ পয়েন্টে এগিয়ে থাকলেও জেভরেভ তিনটি ম্যাচ পয়েন্ট সেভ করেন। কিন্তু ডাবল ফল্টের কারনে আবারো ম্যাচটি ডিউস হয়। জার্মান তারকা তিনটি ম্যাচ পয়েন্ট সেভ করলেও পঞ্চম ডাবল ফল্টের কারনে আলকারাজকে শিরোপা উপহার দেন। 

এই জয়ের পর আলকারাজের মূল লক্ষ্য এখন ফ্রেঞ্চ ওপেন। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় মাস্টার্স ১০০০ শিরোপা জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে আলকারাজ বলেছেন, “গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্য নিয়েই আমি প্যারিসে যেতে চাই। গ্র্যান্ড স্ল্যামে নিজেকে প্রমানের জন্য মুখিয়ে আছি। সবাই হয়তবা আমাকে ফেবারিট হিসেবে বিবেচনা করবে, কিন্তু আমি সেটাকে এগিয়ে যাবার অনুপ্রেরনা হিসেবে ধরে কোর্টে নামবো।”

গত বছর সেপ্টেম্বরে টেনিসের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে ইউএস ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছিলেন আলকারাজ। এরপর এপ্রিলে মিয়ামিতে প্রথম মাস্টার্স ১০০০ শিরোপা জয় করেন। গতকাল জিতলেন দ্বিতীয় মাস্টার্স শিরোপা। এর আগে মাত্র ১৮ বছর বয়সে মন্টে কার্লো ও রোমে মাস্টার্স শিরোপা জয় করেছিলেন নাদাল। 
এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি