ঢাকা, রবিবার   ২৫ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ৯ ১৪২৮

মিঠুনের ফিফটি, বিধ্বংসী জয় ও শাকিলের পাঁচ

নাজমুশ শাহাদাৎ

প্রকাশিত : ১২:১৮, ১০ জুন ২০২১ | আপডেট: ১২:৪৪, ১০ জুন ২০২১

মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল হাসান জয় ও সালাউদ্দিন শাকিল

মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল হাসান জয় ও সালাউদ্দিন শাকিল

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) ষষ্ঠ রাউন্ডে আজ বৃহস্পতিবার সকালের তিন খেলায় মুখোমুখি হয়েছে ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টস ক্লাব ও গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব এবং প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।

তিনটি ম্যাচেই প্রথম ইনিংসে নজর কেড়েছেন তিনজন পারফর্মার। এর মধ্যে প্রাইম ব্যাংকের হয়ে ফিফটি পেয়েছেন মোহাম্মদ মিঠুন। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের হয়ে পাঁচটি উইকেট শিকার করেছেন সালাউদ্দিন শাকিল। তবে এই দুজনকে ছাপিয়ে গেছেন তরুণ ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়। নিজ দল ওল্ড ডিওএইচএসের হয়ে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে বিশ্বকাপজয়ী এই ক্রিকেটার।  

আজ সকালে ‘হোম অব ক্রিকেট’ খ্যাত মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৫ রানের মধ্যেই দুই ওপেনারকে হারায় ডিওএইচএস। এরপর একপ্রান্ত আগলে রেখে একের পর এক ছক্কা-চারে নিজের স্কোরকে সমৃদ্ধ করতে থাকেন জয়। তবে অপর প্রান্তে তার সতীর্থরা ব্যস্ত ছিলেন আসা-যাওয়ায়।

এতে অবশ্য মনোবল হারাননি, হালও ছাড়েননি জয়। গাজী গ্রুপের অভিজ্ঞ বোলিং লাইনআপের ওপর রীতিমত স্টিম রোলার চালিয়েছেন এই তরুণ তারকা। মিরপুরে সাজিয়েছেন ছক্কার পসরা। মোট ৩টি চার ও ৭টি ছক্কা হাঁকিয়ে ছুটছিলেন সেঞ্চুরির লক্ষ্যেই। তবে নির্ধারিত ২০ ওভারের খেলা শেষ হয়ে যাওয়ায় অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়েন জয়। এর আগেই তাঁর নামের পাশে জ্বলজ্বল করতে থাকে ৫৫ বলে ৮৫ রান। 

তারপরেও ডিওএইচএসের দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ১৩৬ রান। কেননা, জয় ছাড়া যে দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন মাত্র দুই জন, তাও ছিল ১৫ ও ১১ রান, নয় নম্বরে নামা আল আসলাম ও সাত নম্বরে নামা প্রিতমের ব্যাট থেকে।

সাভারের ৪ নম্বর মাঠে অনুষ্ঠিত অপর ম্যাচে সালাউদ্দিন শাকিলের ঘূর্ণিতেই মাত্র ১০৪ রানে গুটিয়ে গেছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের ইনিংস। মাত্র ১৬ রান দিয়ে পাঁচটি উইকেট শিকার করে রেকর্ড গড়েন এই স্পিনার। জবাবে অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ও ইলিয়াস সানির ব্যাটে ভর করে ১৬ বল হাতে রেখেই ৬ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে শেখ জামাল। 

নুরুল হাসান ৩০ রান করেন এবং ইলিয়াস সানি ২৭ রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন শাকিল। ষষ্ঠ ম্যাচে এটি তাদের তৃতীয় জয়। অন্যদিকে, ছয় ম্যাচের সবকটিতেই হেরেছে প্রথম জয়ের খোঁজে থাকা পার্টেক্স। 

সাভারের ৩ নম্বর মাঠে অনুষ্ঠিত অপর ম্যাচে মোহাম্মদ মিঠুনের ফিফটিতে চড়ে প্রাইম দোলেশ্বরের বিপক্ষে ১৫১ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দিয়েছে তামিমের প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন মোহাম্মদ মিঠুন। তাঁর ৫০ বলের এ ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার ও একটি ছক্কার মার। এছাড়া বিজয় ২৯, কাপালি ২৬ ও নাহিদুল করেন ২০ রান। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি