ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১, || বৈশাখ ২২ ১৪২৮

নবি-ঝড়ে উড়ে গেল পেশওয়ার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:০১, ৩ মার্চ ২০২১ | আপডেট: ২০:১৭, ৩ মার্চ ২০২১

মোহাম্মদ নবি

মোহাম্মদ নবি

মোহাম্মদ নবির ব্যাটিং ঝড়ে ও বাবর আজমের দায়িত্বশীল ইনিংসে পেশওয়ার জালমিকে উড়িয়ে দিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থানে উঠে বসলো করাচী কিংস। আজ বুধবার পিএসএলের ত্রয়োদশ ম্যাচে ১৮৮ করা পেশওয়ারকে ৬ উইকেটের ব্যবধানে হারায় বাবর আজমের দল।

পাঁচ ম্যাচ খেলা জালমির তৃতীয় এ জয়ে বড় ভূমিকা রাখেন অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবি। আফগান সাবেক এই অধিনায়ক খেলেন মাত্র ৩৫ বলে ৬৭ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস। তাঁর এই ঝড়ো ইনিংসে ছিল আটটি চারের সঙ্গে চারটি বিশাল ছক্কার মার।

যদিও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংসটাই খেলেন ক্যাপ্টেন বাবর আজম। তবে ১৮৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৪৩ রানেই তৃতীয় উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া দলকে উদ্ধার করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়ার মূল কাজটি করেই ম্যাচ সেরা হন নবি।

৪৭ বল মোকাবেলা করা বাবর আজম অপরাজেয় থাকেন ৭৭ রানের ইনিংস খেলে। যাতে ছিল ছয়টি চারের সঙ্গে তিনটি ছয়ের মার। জালমির পক্ষে সাকিব মাহমুদ ২টি উইকেট পেলেও রান দেন ৪১টি। এছাড়া মোহাম্মদ ইমরান ও মোহাম্মদ ইরফান পান ১টি করে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে করাচীর বোলিং তোপের মুখে ৩৪ রানে তৃতীয় এবং ৬৯ রানের চতুর্থ উইকেট হারিয়ে বেশ বিপাকে পড়ে যায় পেশওয়ার। তবে সেখান থেকেই দলকে ভালো অবস্থায় এনে দেন দুই বিদেশি রিক্রুট রবি বোপারা ও শেরফেইন রাদারফোর্ড। মাত্র ৯ ওভারের জুটিতেই ৮২ রান তুলে ফেলেন এই জুটি।

আর শেষটায় আমাদ বাটের ৭ বলে ২৭ রানের ক্যামিওতে চড়ে নির্ধারিত ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়েই ১৮৮ রানের লড়াকু পুঁজি পায় জালমি। যদিও শেষতক এই রান করেও জয় বঞ্চিত হয় শোয়েব মালিক বাহিনী। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৮ রান আসে বোপারার ব্যাট থেকে। তাঁর ৪০ বলের ইনিংসে ছিল ছয়টি চারের সঙ্গে একটি ছক্কা। আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করা রাদারফোর্ড খেলেন ৩২ বলে তিনটি করে চার ও ছয় হাঁকিয়ে ৪৬ রানের ইনিংস। করাচীর পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন আব্বাস আফ্রিদি ও মোহাম্মদ ইলিয়াস।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি