ঢাকা, শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন মাশরাফি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:০৯ ১৩ জানুয়ারি ২০২০

মাশরাফি বিন মর্তুজা

মাশরাফি বিন মর্তুজা

বিসিবি চাইলে এখনই আমি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি। একইসঙ্গে তাকে ঘটা করে বিদায় সম্ভাষণ জানানোর ঘোষণা দেয়ায় বিসিবিকে ধন্যবাদও জানান দেশ সেরা এই অধিনায়ক।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় চলতি বিপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এই কথা বলেন মাশরাফি। ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের কাছে ৭ উইকেটে হেরে বিদায় নিয়েছে মাশরাফির ঢাকা প্লাটুন।

এদিন অন্য কোনও অধিনায়ক হলে হয়তো সাংবাদিকদের সামনেই আসতেন না। কিন্তু এলিমিনেটরে বিদায়ের পরও যথারীতি আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত মাশরাফি বিন মর্তুজা। ঢাকার শেষ চারে ওঠা এবং সবার আগে বিদায় নেয়া প্রসঙ্গে ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ দেয়ার পর জাতীয় দলে খেলা এবং অধিনায়কত্ব নিয়েই বেশি প্রশ্নের সম্মুখীন হন নড়াইল এক্সপ্রেস।

পারফরম্যান্স অনুযায়ী এখন আর অটোমেটিক চয়েজ না হলেও একজন অধিনায়ক হিসেবে ম্যাশ এখনও সবার প্রথম পছন্দ। এ বিষয়ে ব্যক্তিগত মতামত জানতে চাওয়া হলে মাশরাফি বলেন, ‘পারফরমারদের যাচাই বাছাইয়ের দায়িত্ব ও কর্তব্য নির্বাচকদের। সেটা তারাই ভালো জানেন। আর অধিনায়ক মনোনীত করে বোর্ড। বিসিবি চাইলে এখনই আমি ক্যাপ্টেনসি (অধিনায়কত্ব) ছেড়ে দেব। সমস্যা নেই।’

তবে বোর্ডকে ধন্যবাদ জানাতে দেরি হয়নি মাশরাফির। তাকে ঘটা করে বিদায় সম্ভাষণ জানানোর ঘোষণা দেয়ায় বিসিবিকে আন্তরিকভাবেই ধন্যবাদ জানান ক্যাপ্টেন। 

এর আগে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খেলা শেষ হওয়ার পর লন্ডনে বসেই ‘মাশরাফিকে বীরের মর্যাদায় বিদায়ী সংবর্ধনা দেয়া হবে’ বলেই ঘোশণা দিয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। 

গত ১২ জানুয়ারি আবারও সেই প্রসঙ্গ তুলে বিসিবি বস বলেন, ‘মাশরাফিকে যতটা সম্ভব ঘটা করে বিদায় জানানো হবে এবং সেটা হবে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা বিদায়ীপর্ব।’

তবে তা নিয়ে মাশরাফির তেমন কোনও উৎসাহ নেই। মাশরাফির ভাষায়, ‘আমার অমন বড়সড় বিদায়ী সংবর্ধনার প্রয়োজন নেই।’

এনএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি