ঢাকা, রবিবার   ২৫ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ১০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কার্ডিফে দর্শক নিরবতায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ২৩:৪৩ ৮ জুন ২০১৯ | আপডেট: ০০:০১ ৯ জুন ২০১৯

বিশ্বকাপের শুরু থেকেই বাংলাদেশ দলের অন্যতম ভরসা ছিল গ্যালারি ভর্তি বাংলাদেশি দর্শক। `বাংলাদেশ-বাংলাদেশ` শ্লোগানে মুখরিত করেছেন বিশ্বকাপ ওয়ার্ম আপ ম্যাচ থেকে গত নিউজিল্যান্ড ম্যাচ পর্যন্ত। কিন্তু হঠাৎই আজকের ম্যাচে দর্শক নিরবতায় ভুগছে বাংলাদেশ।

বিশ্লেষকদের মতে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৮৭ রানের টার্গেটই নিরব করে দিয়েছে বাংলাদেশি দর্শকদের। টার্গেট নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স হতাশা ছড়াচ্ছে গ্যালারিতে। শুরুর উত্তাপ-উত্তেজনা থেমে গেছে একের পর এক উইকেট পতনে।

গত ২৮ মে কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনসে ছিল বাংলাদেশের ওয়ার্ম আপ ম্যাচ। সে ম্যাচেই স্টেডিয়ামে জড়ো হয়েছে কম করে হলেও ৮ হাজার দর্শক। সবার গায়ে বাংলাদেশের জার্সি, সেই সাথে ‌`বাংলাদেশ-বাংলাদেশ` শ্লোগানে মুখরিত করেছেন তারা।

৫ জুন ছিল নিউজিল্যান্ডের সাথে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ। সে ম্যাচে বাংলাদেশ অল্প ব্যাবধানে হারলেও দর্শকদের উৎসাহ উদ্দীপনার শেষ ছিল না। এমনকি এই প্রতিক্রিয়াও ছাড়িয়ে গিয়েছিল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। ব্যাটে বলে বাংলাদেশি প্লেয়ারদের চার ছক্কা আর ঘূর্ণি বলের আঘাতে উইকেটের জোয়ারে ভাসতে থাকে গ্যালারি ভর্তি দর্শক। তাদের উৎসাহ আর শ্লোগানে খেলার গতিও পাল্টে গিয়েছিল সেদিন। ফলে জয়ও আসে বড় ব্যাবধানে।

অবশেষে বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ইংলিশদের কাছে ১০৬ রানের হার মেনেছে টাইগাররা। ৩৮৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২৮০ রানে শেষ হয় মাশরাফিদের ইনিংস। টাইগাররা হারলেও বরাবরের মতোই হেসেছে সাকিব আল হাসানের ব্যাট। তিনি ১১৯ বলে ১২১ রান সংগ্রহ করেন। তবে তাকে কেউ আর যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি।

ইনিংস সূচনা করতে নেমে দলীয় ৮ রানে ফেরেন সৌম্য সরকার। শুরুর সেই ধাক্কা কাটিয়ে দলকে খেলায় ফেরান সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় উইকেটে গড়েন ৫৫ রানের জুটি। কিন্তু বেশিক্ষণ মাঠে স্থায়ী হতে পারেননি তামিম। ২৯ বলে ১৯ রান করে মার্ক উডের বলে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। তার বিদায়ে ১২ ওভারে ৬৩ রানে দুই ওপেনারের উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

এরপরে মুশফিককে সঙ্গে নিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন সাকিব। কিন্তু ১০৬ রানের জুটির পর প্লাঙ্কেটের বলে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিক। এসময় তিনি করেন ৫০ বলে ৪৪ রান।

মুশফিক ফিরে গেলেও সাকিব ৯৫ বলে শতক পূর্ণ করেন। পরে ১২১ রান করে বেন স্টোকসের বলে বোল্ড হন। সাকিব আউট হওয়ার সঙ্গেই শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশের আশা। এরপরে চেষ্টা ছিল শুধু পরাজয়ের ব্যবধান কমানোর।

এরপরে মাহমুদুল্লাহ ২৮, মোসাদ্দেকের ২৬, মেরাজের ১২ রান ব্যবধান কমায় শুধু। ইংলিশদের পক্ষে আর্চার ৩টি, বেন স্টোকস ৩টি, মার্ক উড ২টি উইকেট নেন। এছাড়া প্লাংকেট ও আদিল রশিদ ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি