ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, || ফাল্গুন ১৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

‘খুব কষ্ট হচ্ছে’ কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি দেখে মমতা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:৪৬ ২৫ জানুয়ারি ২০২০

ছ’মাস আগে ওমর যেমন ছিলেন (বাঁয়ে), এখন তিনি যেমন (ডানে)। ছবি: টুইটার

ছ’মাস আগে ওমর যেমন ছিলেন (বাঁয়ে), এখন তিনি যেমন (ডানে)। ছবি: টুইটার

চেহারায় সেই ঝকঝকে ভাবটা আর নেই। বরং চোখের কোণে বলিরেখাটা যেন আরও গভীর হয়েছে। বুক ছুঁইছুঁই কাঁচা পাকা দাড়ির মধ্যে হাসিটা টিকিয়ে রেখেছেন বটে, তবে দু’চোখে বিষণ্ণতার ছাপ স্পষ্ট। বন্দিদশা থেকে জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লার এমন ছবিই সামনে এলো এবার।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) উপত্যকাটির প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছবিটি প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে। ছবিটিতে গাঢ় নীল রঙের জ্যাকেট এবং টুপি পরে বরফের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে ওমরকে। গুঁড়ো গুঁড়ো বরফে দুই কাঁধ ঢেকে আছে তার। বরফ পড়েছে মাথাতেও। সেই অবস্থাতেই ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে আছেন তিনি।

ছবিটি সামনে আসতেই এদিন তা নিয়ে টুইট করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সদ্য সামনে আসা ওমরের ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘এই ছবিতে ওমরকে চিনতেই পারিনি আমি। খুব কষ্ট হচ্ছে আমার। অত্যন্ত দুর্ভাগ্যের বিষয় যে, আমাদের গণতান্ত্রিক দেশে এমনটা হচ্ছে। এ সব কবে শেষ হবে?’

শুধু মমতাই নন, ওমরের ছবিটি দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন বহু মানুষ। এ বছর মার্চে ৫০-এ পা দেবেন ওমর। কিন্তু ছবিতে তাকে অনেক বয়স্ক দেখতে লাগছে বলে মন্তব্য করেন অনেকে। ছ’মাস নয়, ওমরকে দেখে মনে হচ্ছে- বন্দিদশায় ৩০ বছর কাটিয়ে ফেলেছেন তিনি। এমন মন্তব্যও করেন কেউ কেউ। 

এ নিয়ে ন্যাশনাল কনফারেন্সের পক্ষ থেকে কোনও মন্তব্য করা না হলেও, ওমরের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বন্দিদশা থেকে মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত দাড়ি কাটবেন না বলে পণ করেছেন ওমর।

কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করার সিদ্ধান্ত নিলে গত ৫ অগস্ট ওমর আবদুল্লাকে আটক করা হয়। তার পর কেটে গেছে ছয়টি মাস। এখনও শ্রীনগরের হরি নিবাসে বন্দি হয়ে আছেন তিনি। উপত্যকার অপর দুই  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি এবং ওমরের বাবা ফারুখ আবদুল্লাও আছেন বন্দি অবস্থায়। 

ফারুখ আবদুল্লাকে জন নিরাপত্তা আইনে বন্দি করা হয়েছে। গত কয়েক মাস ধরেই তাদের মুক্তির দাবি জানিয়ে আসছেন সমাজকর্মীরা। শুক্রবার মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকেও একই আর্জি জানানো হয় ভারত সরকারকে। 

নির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া কাশ্মীরে বন্দি আছেন যেসব রাজনীতিক, তাদের ছেড়ে দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করতে বলা হয় তাতে। মূলত তার পরই এদিন প্রকাশ পেল ওমর আবদুল্লার ছবি। সূত্র-আনন্দবাজার। 

এনএস/

New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি