ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০, || অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

দ্বিতীয় দেখাতেও ব্যাঙ্গালুর কাছে হারলো কেকেআর

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৪২ ২২ অক্টোবর ২০২০

প্রথম লেগে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ৮২ রানে হারিয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স। আর গতকাল বুধবার (২১ অক্টোবর) ৮ উইকেটে সহজ জয় তুলে নেয় বিরাট বাহিনী। এই জয়ে প্লে-অফের আরও কাছে চলে গেল ব্যাঙ্গালুর। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে দিল্লি ক্যাপিটালসের পরের স্থানেই কোহলিরা। অন্যদিকে এই হারের ফলে চার নম্বরে থাকলেও রান-রেটে অন্যদের থেকে অনেকটাই পিছিয়ে গেল কেকেআর।

এবারের আসরের এখন পর্যন্ত সর্বনিম্ন স্কোর কলকাতার। তাদের দেওয়া ৮৫ রানের মামুলি টার্গেটে পৌঁছতে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে  ১৩.৩ ওভারে ম্যাচ জিতে নেয় ব্যাঙ্গালুরু। অ্যারন ফিঞ্চ ১৬ এবং দেবদূত পারিক্কাল ২৫ রান করে আউট হন। তারপর গুরকীরত সিং এবং বিরাট কোহলি দলকে জেতান। কোহলি ১৮ এবং গুরকীরত ২১ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টস জিতে প্রথম ব্যাটিং নিয়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরের বিরুদ্ধে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৮৪ রান তোলে কলকাতা। এর সর্বোচ্চ ৩০ রান আসে অধিনায়ক মরগানের ব্যাট থেকে। আর নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে নেমে ফার্গুসন ১৯ রানে ছিলেন অপরাচিত। এছাড়া টপ অর্ডারের সাত ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ৩২ রান।

তিন বছর আগে এই বেঙ্গালুরুকে ৪৯ রানে অলআউট করে রেকর্ড গড়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ২০১৭ আইপিএলে ইডেন গার্ডেনের বিরাটের আরসিবিকে ৪৯ রানে শেষ করে দিয়েছিল কলকাতা। এটাই আইপিএলের ইতিহাসে সর্বনিন্ম স্কোর। আর কেকেআরের সর্বনিন্ম স্কোর হল ৬৭ রান। ২০০৮ অর্থাৎ প্রথম আইপিএলে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে এই রান করেছিল কেকেআর।

এদিন নাইটদের হয়ে ইনিংস শুরু করেন শুভমন গিল ও রাহুল ত্রিপাঠি। আর বল হাতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরের হয়ে ইনিংস শুরু করেন ক্রিস মরিস। প্রথম ওভারে মরিসের বিরুদ্ধে মাত্র ৩ রান নেয় কেকেআর। প্রথম ওভারে তিন রান তোলা নাইটদের ইনিংসের পতন শুরু হয় পরের ওভার থেকেই।

নিজের প্রথম ওভারে ডাবল উইকেট মেডেন দিয়ে বেঙ্গালুরুকে স্বপ্নের শুরু দেন সিরাজ। পরপর দু’ বলে দু’উইকেট তুলে নেন তিনি। ওভারের তৃতীয় ও চতুর্থ ডেলিভারিতে যথাক্রমে রাহুল ত্রিপাঠি (১) এবং নীতিশ রানাকে (০) ডাগআউটে ফেরত পাঠান সিরাজ। নিজের প্রথম ওভারে ডাবল উইকেট ও মেডেন পান সিরাজ। পরের ওভারে শুভমন গিলকে ফেরান নভদীপ সাইনি। মাত্র ১৪ রানে চার উইকেট হারায় কেকেআর। 

এরপর আবুধাবিতে একটা সময় মনে হয়েছিল কেকেআর তাদের সর্বনিন্ম স্কোর করবে। কারণ ২ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়েছিল কেকেআর। শেষ পর্যন্ত ক্যাপ্টেন ইয়ন মর্গ্যানের লড়াকু ৩০ এবং লকি ফার্গুসনের ১৯ রানের দৌলতে সর্বনিম্ন স্কোরের লজ্জা থেকে রক্ষা পায় কলকাতা।

ম্যাচসেরা হয়েছেন বেঙ্গালুরুর মোহাম্মদ সিরাজ। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৮ রান খরচায় ২ মেডেনসহ নিয়েছেন ৩ উইকেট।

১০ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুই নম্বরে উঠে এসেছে বেঙ্গালুরু। সমান ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট হলেও রান-রেটে এগিয়ে থেকে এক নম্বরে রয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস।
এএইচ/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি