ঢাকা, রবিবার   ০৫ এপ্রিল ২০২০, || চৈত্র ২২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নাপোলির মাঠে স্বস্তির ড্র মেসিদের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৫৬ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর ম্যাচটিতে প্রথমে গোল খেয়ে হারের লজ্জা পেতে যাচ্ছিল বার্সেলোনা। তবে ফরাসি ফরোয়ার্ড অঁতোয়ান গ্রিজমানের নৈপুণ্যে হারের লজ্জা না পেলেও নাপোলির মাঠ থেকে ড্র নিয়ে ফিরেছে সেতিয়েনের শিষ্যরা।

নাপোলির স্তাদিও সান পাওলোয় মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়। প্রথমার্ধে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন ড্রিস মের্টেন্স। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে সমতা ফেরান বার্সেলোনার গ্রিজমান। কিন্তু ম্যাচটিতে প্রায় পুরোটা সময়ে রক্ষণ ধরে রেখে খেলেছে নাপোলি। 

প্রতিপক্ষের মাঠে গোল করার সুবিধা নিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে রইল লা লিগা চ্যাম্পিয়নরা। দল দুটির ফিরতি লেগের ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হলেও শেষ আটের টিকিট পাবে বার্সেলোনাই।

ম্যাচ শুরুর ৩০তম মিনিটে এগিয়ে যায় ইতালিয়ান ক্লাব নাপোলি। সতীর্থের কাছ থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের অসাধারণ দ্রুতগতির এক শটে বার্সেলোনা গোলরক্ষক টের স্টেগানকে পরাস্ত করেন মার্টিনস। তাতে নাপোলির হয়ে সর্বোচ্চ ১২১টি গোলের রেকর্ড স্পর্শ করলেন বেলজিয়ান এই ফরোয়ার্ড। 

প্রথমার্ধে হতাশ করা বার্সেলোনাকে দ্বিতীয়ার্ধে আর আটকে রাখতে পারেনি নাপোলি। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে ম্যাচে সমতায় ফেরে সেতিয়েনের দল। পর্তুগিজ রাইট-ব্যাক নেলসন সেমেদোর পাসে বল পেয়ে ডি-বক্সের মাঝামাঝি থেকে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান গ্রিজমান।

দ্বিতীয়ার্ধে রক্ষণকে আরও আগলে রেখে খেলতে থাকে নাপোলি। যার ফলে বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা বেশ কিছু সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি। এমনকি লিওনেল মেসিকে কোন সুযোগই দেয়নি নাপোলির ইস্পাতকঠিন ডিফেন্স।

ম্যাচের শেষ দিকে দশ জনের দলে পরিণত হয় বার্সেলোনা। স্বাগতিক দলের স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ফাবিয়ান রুইসকে বাজেভাবে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়া হন বার্সেলোনার অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার আর্তুরো ভিদাল।

ফিরতি লিগের লড়াইয়ে দল দুটি বার্সেলোনার ন্যু ক্যাম্পের মাঠে নামবে ১৮ মার্চ।

এএইচ/

New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি